Breaking News
Home / Breaking News / কবি সারমিন জাহান মিতু’র কবিতা “শেষযাত্রা”

কবি সারমিন জাহান মিতু’র কবিতা “শেষযাত্রা”

শেষযাত্রা
.. মিতু

শেষযাত্রার পারাপারে বসে আছি বিমূর্ষ একা।
কে আপন–কে পর,
কাকে ভালোবেসেছিলাম-কে ভালোবেসেছিলে
সবটাই যেনো মিছে আজ।
সোহাগি মেঘ রঙ বায়না ধরে আঁচল পেতে,
সব রঙ মুছে দাও আমার আঁচল আলিঙ্গনে।
মনের উত্তাল তরঙ্গ কেঁদে যায়,
হায় ভালোবাসার খেলাঘরে বিচ্ছেদের করুণ সুরে
সেজে ওঠে আতর-গোলাপ আর ধুপ কাঠি।
ছয় বেহারার পালকি আর আমি,
অন্ধকার ঘেটেঘুটে চলছি
ইথারে ভেসে আসে ফেলে আসা জীবনের পাপের অভিশাপ।
আমি জলসা ঘরের আলো খুঁজেছি অন্ধ চোখে,
কিন্তু জীবনের ছোট্ট টেলিফিল্ম পরিচালনার
অনুমতি ছিলো না আমার নিয়ন্ত্রণে।
তাই পাপ কি-কি পূর্ণতা ক্ষমতাপ্রাপ্ত কর্মকর্তা
কোনদিন বলেনি আমাকে ফিসফিস করে।
তবুও খেলা শেষে পাপের দায়বদ্ধতা কাঁধে তুলে
শেষযাত্রা পথে একাকী বিচরণ আমার।
জানি না ওখানে আলো হাতে অপেক্ষায় কেউ আছে কিনা,
আমার পিতৃকুল -আমার মাতৃকুল
অথবা ঈশ্বর -ভগবান -আল্লাহ।
তবুও যেতে হবে বলেই চলে যাচ্ছি,
মাটির আমি মাটি হবো বলেই হয়তো প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।
আর তোমাকে আজও দিয়ে গেলাম ভালোবেসে,
একলা আকাশ –এক সমুদ্র নোনাজল।
ইচ্ছে ছিলো না তোমায় ছেড়ে যাবার,
তবুও যেতে হবে শেষযাত্রার এক চিলতে আলো অপেক্ষায়।
অন্ধ প্রেম নয় –অন্ধ মোহ নয়,
আমার যে আলো চাই অনেক বেশি অন্ধকার আলো।

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com