Home / Breaking News / কবি কেয়া কুন্ডু’র কবিতা ” লক্ষ্মী “

কবি কেয়া কুন্ডু’র কবিতা ” লক্ষ্মী “

শিরোনাম:লক্ষী
কলমে:কেয়া কুন্ডু
তারিখ:২০/১০/২১

এক লক্ষী ঘরে বসেই,হকুম জারি করে,
এক লক্ষী পরের ঘরে,লুকিয়ে কেঁদে মরে।
এক লক্ষী মেম সাহেব,ধন্যি মেয়ের বেশ,
এক লক্ষী ঘরে এসেই,তাচ্ছিল্যেই শেষ।
এক লক্ষী নিজের ঘরে,শিকল খোলা পায়,
সেই লক্ষীই পরের ঘরে শিকলে বাঁধা হায়।
ঘরের লক্ষীর শত্রুও হয়,পরের ঘরের লক্ষী,
ঘরের লক্ষীও পরের ঘরে,একই দশার সাক্ষী।
এক লক্ষী এঘর সেঘর,বাঁধাই পড়ে থাকে,
এক লক্ষীর সব ঘরেতেই, বাঁধন খোলা রাখে।
এক লক্ষী শিক্ষা-দীক্ষা,সকল জিনিস পায়,
এক লক্ষী পেটের জ্বালায়,ইজ্জত বেচে খায়।
এক লক্ষ্মী পেটেই মরে,মা তার কেঁদে মরে,
এক লক্ষী হাসিমুখেই,লক্ষ্মী আনে ঘরে।
এক লক্ষী ধর্ষিতা হয়,নাই তার কোনো দোষ,
সেই লক্ষ্মীকে হতে হবে কালী,মেটাতে তাহার রোষ।

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com