Breaking News
Home / Breaking News / কচুয়ায় আওয়ামী আসন্ন ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে সভাপতি প্রার্থী মুকুল খাদ্যদ্রব্য মূল বৃদ্ধি নিয়ে যা বললেন

কচুয়ায় আওয়ামী আসন্ন ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে সভাপতি প্রার্থী মুকুল খাদ্যদ্রব্য মূল বৃদ্ধি নিয়ে যা বললেন

মফিজুল ইসলাম বাবুল,কচুয়াঃ
কচুয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের আসন্ন ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে সভাপতি পদ-প্রার্থী সিনিয়র নেতা ফজলে কাদের মুকুল খাদ্যদ্রব্য মূল্য বৃদ্ধি নিয়ে যা বললেন।

খাদ্যদ্রব্যের মূল্য পৃথিবীর সকল দেশেই বেড়েছে। বাংলাদেশও তার থেকে ব্যাতিক্রম কিছু নয়। দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি নিয়ন্ত্রণে কার্যকর উদ্যোগ গ্রহন করা সরকারের দায়দায়িত্বের মধ্যে পড়ে। দেশে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির পিছনে ব্যাবসায়ীদের কারসাজি থাকাটা- আমাদের মত দরিদ্র দেশে অস্বাভাবিক নয়। অতীতে আমরা ব্যাবসায়ীদের এ ধরনের অপরাধের সাথে সংশ্লিষ্ট থাকতে দেখেছি। আবার সরকারকেও সময়মত কার্যকর ব্যাবস্থা গ্রহন করে বাজারে স্বস্তি ফিরিয়ে আনতে দেখেছি। দেশের আইনের দৃষ্টিতে ব্যাবসায়ীদের ব্যাবসা পরিচালনা করার জন্য- তাদের জন্য সুনির্দিষ্ট বিধিমালা করা আছে, সে সকল বিধিমালার আলোকে ব্যাবসায়ীদের ব্যাবসা পরিচালনা করতে হয়। ব্যাবসায়ীদের মধ্যে কেউ যদি অতিরিক্ত মুনাফা অর্জনের উদ্দেশ্যে মজুতদারি, চোরাকারবারি, পন্যের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টির মত অবৈধ কাজ করে, তবে সে সকল ব্যাবসায়ীকে দেশের আইনের আওতায় আনার দায়িত্বটি অনতিবিলম্বে সরকারের পক্ষে গ্রহন করতে হবে। এক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট ব্যাবসায়ীদের কে কোন রাজনৈতিক দলের নেতা, সমর্থক- সেটা সরকারের বিবেচনায় আনার কোনও সুযোগ নেই। দ্রব্যমূল্য স্থিতিশীল রাখা বা সহনীয় পর্যায়ের আনার জন্য সরকারকে দ্রুত কার্যকর উদ্যোগ গ্রহন করতে হবে। এক্ষেত্রে অপরাধী ব্যাসায়ীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যাবস্থা নিতে হবে। এটাই জনসাধারণের কাছে কাম্য।

দেশে যখন দ্রব্যমূল্যের উর্ধগতিতে সাধারন মানুষের জীবন অতিষ্ঠ, তখন যদি সরকারের দায়িত্বশীল মন্ত্রী বা কর্তাব্যাক্তিরা জনগনের উদ্দেশ্য বলেন- দ্রব্যমূল্য তেমন কোনও বাড়ে নাই, অথবা সকলেই স্বাচ্ছন্দ্যের সাথে জীবন জীবিকা নির্বাহ করছে, অথবা দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির পিছনে বিএনপি/জামায়াত বা অন্য কোনও রাজনৈতিক দলের ব্যাবসায়ী নেতা সমর্থকদের সিন্ডিকেট জড়িত- তা হলে এ ধরনের মন্তব্য সরকারের ব্যার্থতাকেই জনসাধারণের সামনে স্বীকার করার সামিল। সরকারের দায়িত্বশীল কর্তাব্যক্তিদের এ ধরনের দায়িত্বহীন মন্তব্যের জন্যই রাষ্ট্র ক্ষমতায় থাকা সরকারকে জনসাধারণের কাছে অপশাসনের অভিযোগে অভিযুক্ত হয়।

তাই ক্ষমতাসীন দলের একজন নগন্য কর্মি হিসেবে অনুরোধ করছি- দলের এবং সরকারের দায়িত্বশীল কর্তাব্যক্তিদের, দেশের সাধারন মানুষের চলমান দূর্বিষহ অবস্থায়- বর্তমান পরিস্থিতিকে রাজনীতিকরনের চেষ্টা করা থেকে বিরত থেকে বাজারে দ্রব্যের সরবরাহ নিশ্চিত করন, এবং দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি সহনীয় পর্যায়ের আনার জন্য দ্রুত কার্যকর উদ্যোগ নিন। মনে রাখতে হবে সামনেই মাহে রমজান আগত, তাই সতর্কতার সাথে দায়িত্ব পালন করুন।
জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু
ফজলে কাদের মুকুল
শিক্ষাকর্মী ও চেয়ারম্যান গভর্নিংবডি
চাঁদপুর এম এ খালেক মেমোরিয়াল স্কুল এন্ড কলেজ
সহসভাপতি, কচুয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ
উপজেলাঃ কচুয়া, জেলাঃ চাঁদপুর।

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com