Breaking News
Home / Breaking News / দুই বাংলার বৃহত্তম নেটওয়ার্ক দৈনিক শব্দনগরের সেরা চার সাহিত্য

দুই বাংলার বৃহত্তম নেটওয়ার্ক দৈনিক শব্দনগরের সেরা চার সাহিত্য

বাউল
বিশ্বজিৎ সেনগুপ্ত

অসম্ভব প্রয়োজনে
তুলে নেব সামান্য
শর্করা
কার্পাস
ধাতব আকরিক

অনিবার্য বসন্তে
প্রদত্ত প্রকৃতি থেকে
আলটপ খুঁজে নেব
সম্মতির নীল

অশেষ তৃষ্ণা নিয়ে
শব্দ কুয়াশায়
মেখে মেখে
কবিতার ওম

অগণন সিঁড়ি বেয়ে
লেলিহান অগ্নিরথে
নির্বাক চলে যাব
সুতীব্র আঁধারে সুনীল

ছাই নেড়ে পড়ে নিও
অধমের
কতটা মলিন।
@শ্রীসেন

——————————————–
কবিতার শিরোনাম,,,
” ঝরাপাতা”
* ✍️ কলমে.. মিতা দাস **
***** তাং,,,০৫/০৩/২২ *****

ফেলে এসেছি সেদিনের সেই
সোনাঝরা স্বপ্নিল বীণ,
কখনো ভাবিনি এভাবে এই অবেলায়
কুড়াবো একদিন।

শিউলিরা খুঁজেছিল একদিন
শিশির ভেজা ভোর,,,
পলাশও একদিন মেলেছিল
অজান্তে বাহুডোর !

কৃষ্ণচূড়ার রঙিন পেখম
উড়েছিল বাতাসে,
ধ্রুবতারা জেগেছিল একান্তে
নিশির আকাশে;

বর্ষায় সিক্ত মনের ছিল
গভীর বিশ্বাস,
সেদিনের কথারা আজ
কবিতার দীর্ঘশ্বাস !

ভাবি বসে একাকিনী আমি যে বিরোহিনী
কুহু ডাকে কুহকিনী মোহিনী মলয়,,,
দিয়েছে হাতছানি যেন কোন্ হংসীনি
পড়ন্ত বিকেলে এসে করে অভিনয়।

যারা ছিল মোর আত্মীয়-স্বজন
ছেড়ে চলে গেছে থেকেছে গোপন,
অবহেলা ভরে পাইনি কদর,,,,
ভেঙ্গে গেছে মোর বুকের পাজর ।

তবু বলি ওরা ভালোই থাক
যত দূরেই থাকনা কেন ,,
অনাবিল আনন্দে হৃদয় ভরে যাক
আমি না হয় এক ঝরাপাতা জেনো !

আজ অচেনা অজানা কত যে আপন
বুকের গহীনে দিয়েছে স্থান,,
ঝরা পাতা শুধু ঝড়কে ডাকে
শুনিতে যে পাই কত কলতান !!

——————————————–

#কবিতা:–“বিদায় জাদুকর!”
#কলমে:–শুভা লাহিড়ী
#তারিখ:–05/03/2022
******************************
মাঠের প্রতিটি ঘাসের সাথে ছিলো
তোমার অন্তরঙ্গতা!
তোমার খেলায় মত্ত হতো
সকল আবাল-বৃদ্ধ-বনিতা!

এ কথাটা ছিলো আমার তোমার,
সকলেরই প্রায় জানা!
হঠাৎ করেই আড়ি দিয়ে কেন ,
আকাশে মেললে ডানা!

এখন কে বলো তোমার মতো,
আগলাবে মাঠের প্রান্ত?
এত তাড়াতাড়ি কেন চলে গেলে,
চিরঘুমে হ’য়ে শান্ত!

আকাশের সব তারারাও বুঝি,
মেতেছে মারণ খেলায়!
পৃথিবীর থেকে বিদায় নিয়ে,
মেলাতে তারার মেলায়!

ক’দিন আগেই গানের আসরে,
হামলা করেছে জানি!
লতা-সন্ধ্যা- বাপী কে তারারা
নিয়ে নিল কাছে টানি!

যাবার সময় হয়নি মোটেও,
তবু গেলে চলে তুমি!
তোমায় হারিয়ে খেলার জগৎ,
হ’য়ে গেলো মরুভূমি!

জীবন সূর্য অস্ত গেলো,
তোমার জীবন থেকে!
মন খারাপের মেঘেরা এসে,
মন টাকে দিলো ঢেকে!

মাঠের দিকে যাচ্ছে না চাওয়া,
অভিমানী আজ মাঠ!
চোখের জল যাচ্ছে না দেখা,
শুকিয়ে হয়েছে কাঠ!

আমাদের শৈশবের যেন,
অধ্যায় হলো শেষ!
তোমাকে দেখেই জুড়াতো মোদের,
সকল রকম ক্লেশ!

মাঠেতে তোমার আসা মানেই,
মনের মাঝেতে ঝড়!
এত তাড়া ছিলো যাবার তোমার,
আমাদের করে পর!

সেখানে গিয়েও খেলবে বোধ হয়,
তুমি গো আগের মতো!
তোমার খেলায় উঠবে মেতে,
আকাশের তারা যত!

আমরাই শুধু পাবো না তোমায়,
খেলার মাঠেতে গেলে!
টিভির সামনে বসলে পরেই,
চোখ ভরে যাবে জলে!

——————————————–
অদ্ভুৎ এক ষোড়শী
দীর্ঘশ্বাস ! হু হু বিষাদ কালো
মেঘ ! দাঁড়ায় ঘেঁষে নিশ্চুপ; নিশ্চল !
ঝিম দুপুর ! নি:সঙ্গ যাপন ! বিবর্ণ ক্যানভাস !
রূদালী কার্নিশে এক নিঃস্ব চড়ুই; তীব্র আক্ষেপ ! শান্ত দীঘিজলে এ কার ছায়া ! ঝরাপাতা ! টুপটাপ !

সঘন একাকিত্বে !
পুড়ে নি:স্বর ধোঁয়াটে অক্ষর !
নির্ঘুম চোখে কা্ঠফাটা রোদ্দুর ! ভাঙা
মন সন্তাপ ! অস্থির আঁকিবুঁকি ; বেরঙিন
জলছাপ ! লেখা কত চিঠি ! শুকনো গোলাপ ! পরিযায়ী পালকে প্লাবিত স্মৃতিঘোর । অনন্ত তৃষা !

বিষণ্ণ বেহাগ ! বাজে
ওই দূর ! মন্দ্রিত প্রলাপ ! ক্লান্ত
চিলেকোঠায় ব্যাকুল তিয়াস ! ছোপ ছোপ
বিরহ ! বেলোয়ারি প্রতিক্ষায় নিরুত্তাপ শূন্যতা !
বুকঝিম প্রহর জাগায় নিঃশব্দ মায়া ! জ্বলে মগ্ন চৈতন্য মিহি আঁধার ! বুক পাটাতনে ! মৌন চাবুক !

বুকের পাটাতনে // রূপম

——————————————–

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com