Breaking News
Home / Breaking News / চাঁদপুরের সাংস্কৃতিক অঙ্গন পুনরুদ্ধারে চাঁদপুর পৌর পরিষদের সর্বাত্মক চেষ্টা অব্যাহত থাকবে.. মেয়র জিল্লুর রহমান জুয়েল

চাঁদপুরের সাংস্কৃতিক অঙ্গন পুনরুদ্ধারে চাঁদপুর পৌর পরিষদের সর্বাত্মক চেষ্টা অব্যাহত থাকবে.. মেয়র জিল্লুর রহমান জুয়েল

মোহাম্মদ সিন্টুঃ
চাঁদপুর পৌরসবার মেয়র মোঃ জিল্লুর রহমান জুয়েল বলেছেন, চাঁদপুরে ঝিমিয়ে পড়া সাংস্কৃতিক অঙ্গন পুনরুদ্ধার করতে সর্বাত্মক সহযোগিতা করবে পৌর পরিষদ। চাঁদপুরে সুস্থ সংস্কৃতি বিকাশে চাঁদপুর পৌরসভা বা বর্তমান পৌর পরিষদ পৃষ্ঠপোষকতায় সংগঠন ও সাংস্কৃতিক কর্মীদের পাশে থাকবে।
তিনি বলেন, প্রাচীন আমল থেকে চাঁদপুরের শিল্প সংস্কৃতির ঐতিহ্য রয়েছে, অতীত ঐতিহ্য পুনরুদ্ধারের লক্ষ্যে আমি আমার নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা দিয়েছিলাম, এই শহরের সুস্থ সাংস্কৃতিক বিকাশে আপনাদের পাশে আছি।
তিনি আরো বলেন, আমরা রাজনীতি করি,আমাদের অভিজ্ঞতার আলোকে দেখেছি দেশের ও জনগণের স্বার্থে রাজনৈতিক নেতারা কোনো বিষয় জনগণকে উজ্জীবিত করতে ব্যর্থ হয়। কিন্তু সাংস্কৃতিক কর্মীরা সেক্ষেত্রে সফল হয়। কারণ একটি গান বা কবিতা লাখো লাখো মানুষকে উজ্জীবিত করে, তাঁর বড় প্রমাণ আমাদের মহান স্বাধীনতা সংগ্রাম। সেদিন ৭ কোটি বাঙালী কে উজ্জীবিত করতে সাংস্কৃতিক কর্মীরা ঐক্যবদ্ধ করেছিলো সংগীতের মধ্য দিয়ে। শিল্পচূড়ার ৩ দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের সমাপনী অনুষ্ঠানে
প্রধান অতিথি হিসাবে এ কথা গুলো বলেন। আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও শহীদ দিবস উপলক্ষে
ভাষার জন্য রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারী… শ্লোগানে চাঁদপুরের অন্যতম সাংস্কৃতিক সংগঠন শিল্পচূড়ার উদ্যোগে ৩ দিনব্যাপী অনুষ্ঠান মালার গতকাল ২৩ ফেব্রুয়ারী বুধবার সমাপনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। তিনি চাঁদপুরের অন্যতম সাংস্কৃতিক সংগঠন শিল্পচূড়ার প্রতিষ্ঠার পর থেকে জানামতে বেশকটি প্রশংসনীয় কর্মসূচী পালন করেছে বলে মন্তব্য প্রকাশ করেন।
সংগঠনের সভাপতি মাহবুবুর রহমানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মাইনুদ্দিন লিটন ভুইয়ার উপস্থাপনায় সমাপনী অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা জানান সংগঠনের সহ সভাপতি ও বাবুরহাট স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ মোশারফ হোসেন, সংগঠনের সহ সভাপতি স্বপন সেন গুপ্ত, অজয় ভৌমিক,।
আলোচনা শেষে বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে ক্রেস্ট ও সনদ বিতরণ করা হয়।
অনুষ্ঠানের শুরুতে আমরি বাংলা ভাষা সংগীত ও নৃত্যাভাস দিয়ে অনুষ্ঠানের সূচনা করা হয়।
এদিকে ৩ দিনব্যাপী অনুষ্ঠান মালার ১ম দিন ২১ শে ফেব্রুয়ারী রাত ১২ টা ১ মিনিটে চাঁদপুর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে জাগরনী অনুষ্ঠানে শ্রদ্ধান্জলী প্রদান।
২২ ফেব্রুয়ারী মঙ্গলবার সকাল ১০ টায় চাঁদপুর পৌর পাঠাগারে ৩টি গ্রুপে আবৃত্তি, ছবি আকা ও সৃজনশীল লিখন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।
উল্লেখিত ৩ টি গ্রুপের প্রতিযোগিতায় প্রায় দু’শতাধিক প্রতিযোগী অংশ নেয়।
এছাড়াও প্রতিযোগিতা শুরুর পূর্বে চাঁদপুর পৌর সভার মেয়র অ্যাডঃ মোঃ জিল্লুর রহমান জুয়েলের পক্ষ থেকে দেয়া ৩ শত মাস্ক বিতরণ করা হয়। উল্লেখ্য শিল্পচূড়ার আয়োজনে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও শহীদ দিবস উপলক্ষে আয়োজিত উক্ত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানটি মনোমুগ্ধকর পরিবেশনা অনুষ্ঠিত হয়।

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com