Breaking News
Home / Breaking News / দুই বাংলার বৃহত্তম নেটওয়ার্ক দৈনিক শব্দনগরের সেরা চার সাহিত্য

দুই বাংলার বৃহত্তম নেটওয়ার্ক দৈনিক শব্দনগরের সেরা চার সাহিত্য

ভূলোনা আমায়
কলমেঃ মিলাদ হোসেন
তারিখঃ ০৯/০২/২০২২

সাদা কাফন পরিয়ে যখন
রাখবে আমায় খাটিয়ায়
গোলাপ জল ছিটিয়ে দিও
আমার সারা গায়।

আগরবাতি জ্বালিয়ে দিও
কোন এক পাশে
পাক কালাম পড়িও বসে
আমার লাশের পাশে।

লোক সমাগম অনেক হবে
দেখতে আসবে লাশ
দু এক মিনিট হয়তো বসবে
নিথর দেহের পাশ।

কাঁদা মাটির ঘরে আমায়
রেখে আসবে যখন
স্মৃতিগুলো মনে হলে কি
তাকাবে ফিরে তখন?

সোনার একটা সংসার ছিল
ছিল কত কিছু
নিঃশ্বাস বেড়িয়ে গেলেই
সবই হয় মিছু ।

কয়দিন-ই বা মনে রাখে
প্রিয় আপনজন
আপন কাজে ব্যস্ত হয়ে
ভুলে যায় তখন।

—————————————–

কোথায় যাচ্ছে—কেন যাচ্ছে—
চৈতন্য কুমার বর্মন
০৮/০২/২০২২
সকাল হতেই দৌড়োচ্ছি চারিদিক
করুণ মৃত্যু
একটা দুটো তিনটে—-অগণন
মোবাইলের রিংটোন কাঁপছে থরথর
দরজাটা আচম্বিতে শব্দ করে উঠছে
কে মরলো—কোন্‌দিক?
পাতাগুলো ঝরে ঝরে পড়ছে
পায়ের তলায় মর্মর শব্দ
নিস্তব্ধ উঠোন
থেকে থেকে কান্নার রোল
কে যায়—আহা, চেনা মুখ
সখ্য বহুদিনের
বাঁচার সাধ ছিল বড়
এই জমি-জিরেত, দালানকোঠা
রঙিন আলোয় ভরে তোলা স্বর্ণকক্ষ
ড্যাবড্যাব করে তাকিয়ে আছে
কোথায় যাচ্ছে—কেন যাচ্ছে—
কে দেবে এর উত্তর।।

——————————————-

ইচ্ছে ও মেঘ
রুমানা নাসরীন
তারিখ ঃ ০৯/০২/২০২২

হঠাৎ করেই ইচ্ছে হলো পাখির মতো উড়ি
লাটাইটাকে হাতে বেঁধে দেই ছেড়ে মন ঘুড়ি।
নীল মেঘের ঐ রাজ্যে যাবো নীল পরীদের ভীড়ে
একটা পরী নিজেই হবো মেঘ সাগরের তীরে।

মেঘকে আমি বলবো হেসে কোথায় তোমার নাও?
এই সাগরে ভাসবো বলে ছেড়ে এলাম গাঁও।
শুনেছি আজ জমবে মেলা, নীল পরীদের হাট
আলোয় আলোয় উঠবে জেগে তোমার এ তল্লাট।
নাও না আমায় সাথে ও ভাই শুভ্রতার এই দেশে
যেমন করে ভালোবাসা মেঘের সাথে মেশে।
যেমন করে তোমার বুকে বৃষ্টি বাঁধে ঘর
যেমন করে নদীর বুকে জাগে বালুচর।

বললো হেসে মেঘের রাজা, ইচ্ছেটা নয় মন্দ
কিন্তু তোমার শরীর জুড়ে মানুষ মানুষ গন্ধ!

——————————————

দুঃখ বড় আপনার
জয়দেব মণ্ডল
০৯/০২/২২

আনন্দ চিরকালই ভরসাবিহীন
অসময় হলেই দেয় যে ফাঁকি।
বরং দুঃখ বড় আপনার
তাই বুকের মাঝে পুষে রাখি।

মাঝে মাঝে ঝুলি উপুড় করি
ধারে কাছে যখন কেউ থাকে না।
পরম স্নেহে আদর করি
চোখের জল তখন বাঁধ মানে না।

তোমরা বলো, বদ্ধ পাগল
এমন করে কি কেউ দুঃখ পোষে!
কান্নাকাটির হাট জুড়ে দিয়ে
নিরিবিলিতে থাকে বসে।

আমি দাদা আছি আমার মতন
ওদের কথায় কান দিই না মোটে।
এক একসময় এক একরকম কথা
লেগেই আছে ওদের ঠোঁটে।

হৈ-হুল্লোড়ে মত্ত হলে
ভালোবাসার মর্ম কজন বোঝে।
বদ্ধ পাগল না হলে কি কেউ
দুঃখের মাঝে সুখ খোঁজে।

দুঃখ যে বড় আপনার
তাই দুঃখের মাঝেই সুখ খোঁজা।
বেদনার বালুচরেই তো যায়
আপনজনের মূল্য বোঝা।

আসলে ওরাই বদ্ধ পাগল
আমাকে ঘুরিয়ে পাগল বলে।
বুঝবে সেদিন, অসময়ের হাতছানিতে
নাচন কোদন সারা হলে।

সবাই আছে আপন আপন
গারদের নিজের সেলে।
যার যেখানে ভালো লাগে
সত্যি কথা বলতে গেলে।

তুমিও না হয় একটু দুঃখ দিলে
তাতে আমার কিছু যায় আসে না।
দুঃখ যে আমার মাসি পিসি
আনন্দতে তাই মন ভেজে না।

দুঃখ বড় আপনার
তাই দুঃখগুলো সব আমায় দিও।
আনন্দগুলো তোমাদের জন্য
তোমরা সবাই ভাগ করে নিও।

——————————————-

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com