Breaking News
Home / Breaking News / চাঁদপুর হরিনা নৌ পুলিশের অভিযানে ১২০কেজি জেলী যুক্ত গলদা চিংড়ি ও ১টি হাইয়েস গাড়িসহ আটক ২

চাঁদপুর হরিনা নৌ পুলিশের অভিযানে ১২০কেজি জেলী যুক্ত গলদা চিংড়ি ও ১টি হাইয়েস গাড়িসহ আটক ২

শাহরিয়ার খানঃ
চাঁদপুর হরিনা ঘাট নৌ পুলিশ ফাঁড়ি বিশেষ অভিযান চালিয়ে ১২০কেজি বিষাক্ত জেলী পদার্থ যুক্ত গলদা চিংড়ি ও ১টি হাইয়েস গাড়িসহ ২ পাচারকারীকে আটক করা হয়েছে।
বুধবার ভোরে চাঁদপুর হরিনা ঘাট এলাকা দিয়ে হাইয়েস গাড়ির ভিতরে বিষাক্ত জেলি যুক্ত চিংড়ি মাছ নেওয়ার সময় তাদের আটক করে।
চাঁদপুর অঞ্চলের পুলিশ সুপার, জনাব মােঃ কামরুজ্জামানের নির্দেশে হরিনাঘাট নৌ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ,এসআই মােঃ রেদওয়ান আহমেদ এর নেতৃত্বে সঙ্গীয় অফিসার-ফোর্স সহ গােপন সংবাদের
ভিত্তিতে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করেন।
চাঁদপুর সদর মডেল থানাধীন হরিনা ফেরীঘাটের ১নং পল্টন এর সামনে রাস্তার উপর হইতে ০২ (দুই) টি সাদা রংয়ের কসিটে বরফ দ্বারা আবৃত প্রতিটি
কসিটে ১২০ কেজি গলদা চিংড়ি মাছ জব্দ করা হয়। এ সময় হাইস গাড়ির চালক পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে গেল মাছ পাচারকারী মােঃ ইউসুফ তালুকদার (৩০),ও মােঃ জহির উদ্দিন (২৭)কে আটক করতে সক্ষম হবে নৌ পুলিশ।
নৌ পুলিশ ইনচার্জ রেদোয়ান আহমেদ জানান, প্রতিরাতে খুলনা থেকে হাইয়েস গাড়ির ভিতরে বিষাক্ত জেলি মিশ্রিত গলদা চিংড়ি মাছ হরিনা ফেরি ঘাট দিয়ে পাচার হয়। ঘটনার দিন হাইয়েস গাড়ি থেকে জেলি মিশ্রিত চিংড়ি মাছের কাটুন গাড়ি থেকে সিএনজি স্কুটারের উঠানোর সময় তাদের হাতেনাতে ধরা হয়। এসময় দুজনকে আটক করলেও চালক পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে পালিয়ে যায়। আটককৃতদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী জানা যায় এই জেলি মিশ্রিত ২ প্লাটুন বোঝাই ১২০ কেজি মাছ শাহরাস্তি কালিয়াপাড়া এক মাছ ব্যবসায়ী কাছে যাবার কথা।
মাছগুলো আটক করার পর চাঁদপুর জেলা পুলিশের এক কর্মকর্তা তাদের পক্ষ নিয়ে ছেড়ে দেওয়ার জন্য নৌ-পুলিশ কে মোবাইল ফোনে সুপারিশ করেন।
তারা অনেক চেষ্টা করেও ব্যস্ত হয় অবশেষে আটককৃতদের বিরুদ্ধে নিরাপদ খাদ্য আইন এর ৫৮ ধারায় মামলা দায়ের করা হয় ও মৎস্য কর্মকর্তার উপস্থিতিতে জেলি মিশ্রিত চিংড়ি মাছ গুলো মাটি খুঁড়ে গর্ত করে পুতে ফেলা হয়েছে। এ ঘটনায় আজ যারা জড়িত রয়েছে তাদের বিরুদ্ধেও আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com