Home / Breaking News / সন্ধ্যা নামতেই ঘরে ঢুকে ১৩ বছরের মেয়েকে নিয়ে ক্ষেতে যায় ৪ বখাটে

সন্ধ্যা নামতেই ঘরে ঢুকে ১৩ বছরের মেয়েকে নিয়ে ক্ষেতে যায় ৪ বখাটে

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি :: কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলার ১৩ বছর বয়সী এক শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ এনে চার বখাটের বিরুদ্ধে সোমবার শিশুটির মা সাহিদা বেগম বাদী হয়ে কিশোরগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২ আদালতে একটি মামলা করেন। এলাকার শরীফ (২২), ফাহিম (১৮), বায়েজিদ (২৪) ও তৌহিদকে (২৬) মামলার আসামি করা হয়। আদালতে মামলা করেছে তার মা। ঘটনার পর পর বখাটের অভিভাবকদের বিষয়টি জানালে তারা উল্টো ভয়ভীতি দেখাচ্ছে বলে অভিযোগ পরিবারটির। তাই তাদের ভয়ে থানায় মামলা দিতে পারেনি তারা। ঘটনাটি ঘটেছে গত শুক্রবার সন্ধ্যায় ভৈরবের কালিকাপ্রসাদ ইউনিয়নে।
মামলার আর্জিতে শিশুটির মা জানান, গত শুক্রবার সন্ধ্যায় ওই চার বখাটে তাদের বাড়িতে এসে মেয়েকে মুখ বেঁধে জোর করে ঘর থেকে বের করে পাশের একটি ক্ষেতে নিয়ে যায়। এ সময় তিনি ও তাঁর স্বামী বাড়ির পাশে একটি মাঠে ধান মাড়াই করছিলেন। মেয়েকে একা পেয়ে বখাটেরা ক্ষেতে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে ও স্পর্শকাতর অঙ্গে কামড়ে দেয়। এ সময় মেয়ের চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে এলে বখাটেরা পালিয়ে যায়।
মামলার জের এবং ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে ওই বখাটেদের পরিবারের প্রভাবশালী সদস্যরা পরিবারটিকে একঘরে এবং গৃহবন্দি করে রাখায় বিষয়টি সংবাদকর্মীদের কাছে জানাতে পারেননি বলে জানান শিশুটির মা। আজ পরিচিত এক ব্যক্তির মাধ্যমে বিষয়টি মোবাইল ফোনে জানাতে পেরেছেন বলেও জানান তিনি।
শিশুটির মা জানান, ঘটনাটি ঘটার পর থেকে বখাটেদের পরিবারের লোকজন তাদের নানাভাবে হুমকি দিচ্ছে মামলা তুলে নিতে। তাদের ভয়ে তারা থানায় যেতে পারেননি। তাই গোপনে কিশোরগঞ্জ গিয়ে মামলা করেছেন। তিনি অভিযোগ করেন, বিষয়টি এলাকার চেয়ারম্যান-মেম্বারকে জানিয়েও কোনো ফল পাননি। এ ছাড়া তিনি ঘটনাটি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে (ইউএনও) জানিয়েছেন বলেও জানান।
ভৈরবের উপজেলার ইউএনও ইসরাত সাদমীন জানান, ঘটনাটি জানাতে শিশুটির মা তাঁর কাছে এসেছিলেন। কিন্তু আদালতে মামলা করায় বিষয়টি আদালতের বিচারাধীন হয়ে গেছে। তারপরও পরিবারটিকে নিরাপত্তা দিতে পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছেন বলেও জানান তিনি।

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com