Breaking News
Home / Uncategorized / চাঁদপুর পুরাণবাজার মধুসূদন স্কুলের সেরা সাফল্যে ১০ জন জিপিএ-৫সহ পাশের হার ৯১%

চাঁদপুর পুরাণবাজার মধুসূদন স্কুলের সেরা সাফল্যে ১০ জন জিপিএ-৫সহ পাশের হার ৯১%

স্টাফ রিপোটার ॥ চাঁদপুর শহরের পুরাণবাজার মধুসূদন উচ্চ বিদ্যালয়ে (এমএইচ উচ্চ বিদ্যালয়) এবার এসএসসি পরীক্ষায় সেরা সাফল্যে পেয়েছে। এ বিদ্যালয়ের ১০ জন জিপিএ-৫সহ গড় পাশের হার ৯০.৯১ ভাগ। এর মধ্যে গোল্ডেন এ প্লাস পেয়েছে ২জন। এর আগে ২০১২ সালে জিপিএ-৫ পেয়েছিল ৭ জন।
জানা গেছে, এ বছর এসএসসি পরীক্ষায় মোট ১৮৭জন পরীক্ষার্থী অংশ নেয়। এর মধ্যে কৃতকার্য হয়েছে ১৭০ জন। এ গ্রেডে ২৮,এ- ৪৭ এবং বি-৪৭ জন পাশ করে।জিপিএ-৫ প্রাপ্ত সকলই বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র ছাত্রী।
জিপিএ ৫ প্রাপ্তরা হলোঃ তানিয়া আক্তার (গোল্ডেন) পিতা মাসুদ গাজী,, সজল কুমার বিশ্বাস (গোল্ডেন) পিতা রতন কুমার বিশ^াস, ফাহমিদা ওমর আলো পিতা ওমার ফারুক, মায়া আক্তার মীম,পিতা বাচ্চু মিজি, পরমিতা সাহা পিতা পিন্টু স্হাা, সজীব হাওলাদার পিতা মোঃ হানিফ হাওলাদার, রিয়াদ খান পিতা উজ্জ্বল খান, ধ্রুব মল্লিক পিতা উত্তম মল্লিক, কনক দাস পিতা মানিক দাস, ও সুজয় দাস পিতা সনাতন দাস।
বিদ্যালয়ের ভালো ফলাফলে খুশি প্রধান শিক্ষক গণেশ চন্দ্র দাস। তিনি বলেন, আমার সময়ে সেরা সাফল্য। ফলাফলের এ ধারা অবশ্যই অব্যাহত রাখতে পারলে আমাদের প্রচেষ্টা সার্থক হবে। এ ব্যাপারে ম্যানেজিং কমিটি,শিক্ষক মন্ডলি এবং অভিভাবকদের কাছে আমি কৃতজ্ঞ।
তিনি অভিভাবকদের ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ছেলেমেয়েদের লেখাপড়ার ব্যাপারে তারা ভালোভাবে নজর দিয়েছেন বলেই এ ভালো ফলাফল সম্ভব হয়েছে।
বিদ্যালয় সভাপতি ও চাঁদপুর চেম্বারের সিনিয়র সহ-সভাপতি সুভাষ চন্দ্র রায় বলেন, মেধাবী ছেলে-মেয়েরা সবাই হাসান আলী,মাতৃপীঠ ও আল-আমিন স্কুলে ভর্তি হয়। আমরা তেমন ভাল ছাত্র-ছাত্রী পাই না।সে হিসেবে আমাদের স্কুল প্রতিবছরই সন্তষজনক ফলাফল করছে। এবার রেজাল্ট খুবই ভাল হয়েছে । ২ জন গোল্ডেনসহ ১০জন জিপিএ-৫ পেয়েছে। গড় পাশের হার প্রায় ৯১%। এ সাফল্যের পেছনে শিক্ষক মন্ডলিদের অনেক শ্রম ছিল। আমি সকলকে ধন্যবাদ জানাই।

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com