Home / Breaking News / টাঙ্গাইলে বাসে ধর্ষণের ঘটনায় সুপারভাইজার গ্রেপ্তার

টাঙ্গাইলে বাসে ধর্ষণের ঘটনায় সুপারভাইজার গ্রেপ্তার

টাঙ্গাইলের একটি বাসে ‘মানসিক ভারসাম্যহীন’ এক নারীকে দলবেঁধে ধর্ষণের ঘটনায় বাসের সুপারভাইজারকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

সোমবার ভোরে `টিটি এন্টারপ্রাইজের’ ওই বাসের সুপারভাইজার এরশাদকে টাঙ্গাইলের কালিহাতীর কুর্শাবেনু এলাকার বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব থানার ওসি মোশাররফ হোসেন জানান।

এদিকে ঘটনার পর থেকে গাজীপুরের পূবাইলে সরকারি আশ্রয়ণ কেন্দ্রে থাকা ওই নারীকে তার পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেওয়ার আদেশ দিয়েছে আদালত।

টাঙ্গাইলের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আশিকুজ্জামান সোমবার এ আদেশ দেন বলে আদালত পুলিশের পরিদর্শক আনোয়ারুল ইসলাম জানান।

তিনি জানান, গ্রেপ্তার এরশাদকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ পাঁচ দিনের দিনের রিমান্ডের আবেদন করলে বিচারক শুনানির জন্য মঙ্গলবার দিন রেখেছেন।

কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার ওই নারী গত ২৩ অগাস্ট ঢাকায় বোনের বাসা থেকে নিখোঁজ হন। এ বিষয়ে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন তার স্বজনরা।

সাত দিন নিখোঁজ থাকার পর গত বৃহস্পতিবার রাতে বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব থানা থেকে মেয়েটির বাড়ির লোকজন তার হদিস পান।

ওসি মোশাররফ বলেন, বৃহস্পতিবার গভীর রাতে টাঙ্গাইল থেকে বঙ্গবন্ধু সেতুতে যাওয়ার পথে টিটি এন্টারপ্রাইজের একটি বাসের ভেতর ওই নারীকে ‘ধর্ষণ’ করা হয়।

বাস থেকে একটি মেয়ের চিৎকার শুনে বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্বপাড়ের ইব্রাহিমাবাদ রেল স্টেশনের নৈশপ্রহরী বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব থানার টহল পুলিশকে খবর দেন।

পরে পুলিশ বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব এলাকায় বাসস্ট্যান্ডে গিয়ে মেয়েটিকে উদ্ধার করে এবং বাসের হেলপার নাজমুলকে গ্রেপ্তার করে।

ওসি বলেন, এ ঘটনায় বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব থানার এসআই নূরে আলম সিদ্দিকী বাদী হয়ে বাসের চালক আলম খন্দকার ও তার সহযোগী নাজমুলের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

গ্রেপ্তার নাজমুল শুক্রবার সন্ধ্যায় টাঙ্গাইলের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম মো. আশিকুজ্জামানের কাছে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন।

ওসি বলেন, “জবানবন্দিতে বাসের চালক আলম ও সুপারভাইজার এরশাদ মেয়েটিকে নির্যাতন করে বলে স্বীকার করেন নাজমুল। তার দাবি, ওই সময় তিনি বাসের বাইরে দাঁড়িয়ে পাহারা দিচ্ছিলেন।”

নাজমুলের দেওয়া তথ্যেই বাসের সুপার ভাইজার এরশাদকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানান এ পুলিশ কর্মকর্তা।

এর আগে টাঙ্গাইলের মধুপুরে গত বছর চলন্ত বাসে সিরাজগঞ্জের এক তরুণীকে দলবেঁধে ধর্ষণ শেষে হত্যা করা হয়। তারও এক বছর আগে মধুপুরে চলন্ত বাসে আরেক তরুণীকে দলবেঁধে ধর্ষণের ঘটনা ঘটে।

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com