Breaking News
Home / Breaking News / জামালপুর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন-২০১৯ ভাইস চেয়ারম্যান পদে, এগিয়ে জনি।

জামালপুর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন-২০১৯ ভাইস চেয়ারম্যান পদে, এগিয়ে জনি।

নিপুন জাকারিয়া, জামালপুর প্রতিনিধি :

উপজেলা পরিষদ নির্বাচন- ২০১৯ আগামী মার্চ মাস থেকে অনুষ্ঠিত ভাবে শুরু হওয়ার কথা প্রকাশ করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এবারের উপজেলা পরিষদ নির্বাচন দলীয় প্রতিকে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা শুনা যাচ্ছে।

জামালপুর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগে, এরই মধ্যে নির্বাচনের হাওয়া বইতে শুরু করেছে। ফেষ্টুন ও ব্যানারে সাজ সাজ রুপ নিয়েছে সদর জুড়ে। চেয়ারম্যান /ভাইস চেয়ারম্যান এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে দুই ডজনের অধিক প্রার্থী নিজেদের ব্যাক্তিগত ইমেজ তুলে ধরছেন।

জামালপুরের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান পদে, নাজমুন আহসান জনির নাম ত্যাগীদের মধ্যে এগিয়ে । এরই মধ্যে দলের সাধারন সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরসহ কেন্দ্রীয় নেতৃবন্দ সারা দেশে খোজঁ খবর নিচ্ছেন, বলে শুনা যাচ্ছে। উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ১২ বছর রাজনৈতির ভাবে মাঠে না থাকলে, আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নয়, তারা সাফ জানিয়ে দিয়েছে।

জামালপুরে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে দু-সময়ের কান্ডারী ও একনিষ্ঠ কর্মী হিসেবে পরিচিত, জেলা সেচ্ছাসেবক লীগের লীগের সাধারন সম্পাদক ভাইস চেয়ারম্যান পদে, তৃনমূল ব্যাপক সারা জাগিয়েছে। তিনি এবারের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অংশ নিতে আগ্রহী। সাবেক জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও আশেক মাহামুদ কলেজ ছাত্র লীগের আহবায়ক কমিটি সদস্য দায়িত্ব নিষ্ঠার সাথে পালন করেছেন। বিভিন্ন ক্রীড়া সংগঠের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব করে, তরুণ প্রযন্মের আস্তা অর্জন করেছেন। সাংস্কৃতি অঙ্গনেও রয়েছে তার অবাদ বিচলন। এস এম থিয়েটার সাধারন সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন দীর্ঘ্য দিন। ত্যাগী কর্মীবান্ধব নেতা হিসেবে যুব সমাজে নাজমুল আহসান জনি সবার চেয়ে একধাপ এগিয়ে।
জামালপুরের আওয়ামী লীগ পরিবারের হাই কমান্ড থেকে শুরু করে, তৃনমূল পর্যন্ত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে জনিকে ভাইস চেয়ারম্যান পদে দেখতে চাই।

জানা গেছে- জেলা আওয়ামী লীগ, উপজেলা আওয়ামীগসহ তৃনমূল নেতৃবন্দ ও ভোটারদের ধারে ধারে যাচ্ছেন। এবং তাদের সমর্থন অর্জন করে সদর জুড়ে আলোচনার শিষ্যে অবস্থান করছেন।

জানা গেছে, সরদার পাড়া কলেজ রোড়ের বাসিন্দা আমজাদ হোসেন ও নূর-জাহান বেগমের পুত্র নাজমুল আহসান জনি। ১৯৮৫ সালে সম্মান্ত্র মুসলিম পরিবারে জম্মগ্রহন করেন। ২০০১ সাথে জামালপুর জেলা স্কুল থেকে এসএসসি, ২০০৩ সালে এস.এইচ.সি ও ২০০৭ সালে বিবিএস অনার্স এবং ২০০৮ এম এস এস (মাস্টার্স) সম্পন্ন করেন সরকারী আশেক মাহামুদ কলেজ থেকে।

জামালপুর পৌরসভাসহ ১৫টি ইউনিয়ন নিয়ে বিশাল আকারে গঠিত জামালপুর সদর উপজেলা পরিষদ । ২০১৯ সালের পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে ঘিরে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হিসেবে ইতিমধ্যেই বেশ কয়েক জনের নাম শুনা গেলেও, তৃনমূলে জনির নাম সুপষ্ট হয়ে উঠেছে।

জনি জানান- জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বুকে নিয়ে ও বঙ্গকন্যা আওয়ামী লীগের অভিবাবক, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি, প্রধানমন্ত্রী, শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে কাজ করে যাচ্ছি। এবারের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনসহ বিগত যেকোন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রতিক নৌকাকে বিজয়ী করনে নিষ্ঠার সাথে কাজ করেছি। সমাজের বাল্যবিয়ে, ক্রীড়াঙ্গন, সাংস্কৃতিক অঙ্গনসহ নানা সামাজিক সচেতনতামূলক বিভিন্ন কর্মকাণ্ড অংশগ্রহণ করেছি। জেলা জুরে তৈরি করেছি তরুণ নেতৃত্ব । সদরের এমপি ইঞ্জিনিয়ার মোজাফফর হোসেনকে সাথে নিয়ে সদরবাসীর উন্নয়নে অংশ নিতে চাই। মনোনয়নের পাওয়ার বিষয়ে তিনি শত ভাগ আশাবাদী। এই ত্যাগী নেতা সকলের দোয়াঁ ও সমর্থন প্রত্যাশা করেন।

আসন্ন জামালপুর সদর উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে জামালপুর জেলা আওয়ামী, সদর উপজেলার আওয়ামী লীগ ও সকল অঙ্গ সংগঠনের সর্বস্তরের নেতাকর্মীরা জনিকে ভাইস চেয়ারম্যান পদে দেখতে চায়েছেন। জনির মনোনয়নের দাবীতে সদর ও পৌরসভা প্রতিটি ওয়ার্ড ও ইউনিয়নে মানববন্ধন করেছে তরুণ প্রযন্ম, বিভিন্ন ক্রীড়া সংঠন ও সুশিল সমাজ ও সাংস্কৃতিক অঙ্গনের ব্যাক্তিবর্গরা।

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com