Breaking News
Home / Breaking News / যৌতুকের মামলায় এস আইকে ৪ বছরের সাজা

যৌতুকের মামলায় এস আইকে ৪ বছরের সাজা

মাদারীপুর প্রতিনিধিঃ
মাদারীপুরে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে মারধর করার দায়ে পুলিশের বরখাস্ত হওয়া এক উপপরিদর্শককে (এসআই) চার বছরের কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। গতকাল সোমবার দুপুরে জেলার জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালত-২-এর বিচারক মোহাম্মদ হোসেন এ রায় দেন।
রায় ঘোষণার সময় আসামি মাহীদুর রহমান সুমন আদালতে উপস্থিত ছিলেন। রায়ের পর তাঁকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।
মামলার নথি সূত্রে জানা গেছে, ২০১০ সালে মাদারীপুর সদর উপজেলার দীঘলপাড়া গ্রামের মোতাহার মিয়ার ছেলে মাহীদুর রহমান সুমনের সঙ্গে কালকিনি উপজেলার বালিগ্রাম ইউনিয়নের খাতিয়াল গ্রামের মকবুল ফকিরের মেয়ে শিখা আক্তারের বিয়ে হয়। বিয়ের সময় আট লাখ টাকার যৌতুক দেন শিখার বাবা। ২০১৪ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর সূত্রাপুর থানায় কর্মরত অবস্থায় এসআই মাহীদুর রহমান সুমন মাদারীপুর শহরে বাড়ি তৈরি করার জন্য স্ত্রী শিখা আক্তারের বাবার কাছ থেকে পাঁচ লাখ টাকা যৌতুক এনে দেওয়ার দাবি করেন। সেই টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে শিখাকে মারধর করে বাবার বাড়িতে পাঠিয়ে দেন সুমন ও তাঁর পরিবারের সদস্যরা। সুমনের নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে ২০১৪ সালের ২৩ এপ্রিল সুমনসহ পাঁচজনকে আসামি করে মাদারীপুরের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালতে মামলা করেন শিখা। এ ঘটনার পর এসআই মাহীদুর রহমান সুমনকে বরখাস্ত করে পুলিশ প্রশাসন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সুমনসহ পাঁচজনকে আসামি করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।
এরপর আদালত অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরু করেন। আদালতে বাদীসহ চারজন সাক্ষ্য দেন। আদালত দীর্ঘ শুনানি শেষে সোমবার মামলার রায় ঘোষণা করেন।
বাদীপক্ষে অ্যাডভোকেট বাবুল আখতার ও আসামিপক্ষে মো. জাফর আলী মিয়া মামলা পরিচালনা করেন।
অ্যাডভোকেট বাবুল আখতার বলেন, আদালত আসামি এসআই মাহীদুর রহমান সুমনকে চার বছরের কারাদণ্ড ও চার হাজার টাকা জরিমানা করেন। জরিমানা, অনাদায়ে আরো দুই মাসের জেল দেন। মামলার আসামি সুমনের পরিবারের চার সদস্যকে বেকসুর খালাস ঘোষণা করেন।

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com