Breaking News
Home / Breaking News / কবি শ্যামল ব্যানার্জীর কবিতা ” গেড়োয় আঁটকে ভুত”

কবি শ্যামল ব্যানার্জীর কবিতা ” গেড়োয় আঁটকে ভুত”

শ্যমল ব্যানার্জী
গদ্য লেখা— গেড়োয় আঁটকে ভুত
১০/১২/২০২১

অনেক ওষুধ পথ্য ডাক্তার বদ্যি করেও অসুখটা যাচ্ছে না মধ্য বয়স্ক অনিমেষের।
এসব দেখে শুনে, চিন্তিত স্ত্রী রেবা।
অবশেষে নিরবতা ভেঙ্গে বলে উঠলো, হ্যাগো শুনছো, ডাক্তার.. বদ্যি তো অনেক দেখানো হলো,
তোমার অসুখটা তো কমছে না,
চলোনা একবার হাসপাতালে দেখিয়ে আসি।
কথাটা শুনেই আঁতকে উঠলো অনিমেষ।
বলি তোমার কি বুদ্ধি সুদ্ধি সব লোপ পেয়েছে,
তুমি হাসপাতালের অবস্থা জানোনা?
—- সেতো মিটমাট হয়ে গেছে। এখন তো হাসপাতাল খোলা, কাজও হচ্ছে।
এবার অনিমেষ খানিকটা বিরক্তই হলো।
বেশ ঝাঁজ দেখিয়ে বললে, মেলা ফ্যাঁচ ফ্যাঁচ কোরোনা তো। যা জানোনা তাই নিয়ে কথা বলতে এসো না।
আজ সব ঠিক আছে, কাল যদি পাবলিক আবার ডাক্তার মারে, তার কি গ্যারান্টি আছে।
তখন তো আবারও ডাক্তারদের ধর্ণা.. কর্মবিরতি..
আবার হাসপাতালের অচলাবস্থা জারি থাকবে।
বিব্রত রেবা আর কথা বাড়ায় না। চলে যায় হেসেল সামলাতে।

এবার দৃশ্য পরিবর্তনে পাশের বাড়ি।
পাশের বাড়ির ছেলে শুভ উচ্চ মাধ্যমিকে দারুণ রেজাল্ট করেছে।
মিস্টির বন্যা এ পাড়া ও পাড়াতেও পৌছে গেছে।
উল্লসিত বাবা মা, পাড়া পড়শি।
এবার আসল কথা, শুভ পরবর্ত্তী কি নিয়ে পড়বে।
অনেকে অনেক বুদ্ধি খরচ করে যায়।
শুভ জানে, কানা মনে মনে জানা।
তাই সে নিরুত্তর থাকে মিস্টি হাসি দিয়ে।
অবশেষে বাবা আর ছেলে বসলে গভীর আলোচনায়,
বাবার প্রশ্ন আসে ধেয়ে, হ্যারে খোকা… এবার তাহলে… জয়েন্টে বসবি তো?
ছেলের জবাব, হ্যা। জয়েন্টে বসবো।
বাবা অধীর আগ্রহে বললে, তুই ডাক্তারি পরীক্ষায় বসবি তো?
শুভ কেমন যেন অন্যমনস্ক ভাবে বলে ফেললো,—
খেপেছো নাকি? পাচঁ বছর ডাক্তারি পড়বো মার খাবার জন্য? কেন বলোতো বাবা?
বাবা হতাশ। চোখে মুখে অসহায়তার ছাপ।
বাবার সুপ্ত ইচ্ছে, ছেলে ভালো ডাক্তার হোক।
সবাই এক ডাকে চিনুক তাকে।
এক ব্যার্থ দীর্ঘশ্বাস ফেলে বলে, খোকা সবাই তো খারাপ না। ডাক্তার তো ভগবানের দ্বিতীয় রুপ।
এবার ছেলে শুভ বিরক্ত হয়ে তার সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেয়,—
ওসব যা খুসি বলোনা কেন আমি মার খাবার জন্য ডাক্তার হবোনা।
শেষ চেস্টায় আর একবার পিতা বলে,
সব ডাক্তার তো আর মার খায়না, কিছু গাফিলতি তো ওদের ও থাকে। এ কথা তো অস্বীকার করার উপায় নেই ।
ছেলে একরোখা, —- আমি ডাক্তার হবোনা.. হবোনা.. হবোনা.. ব্যাস।
রোগী বলে, হাসপাতাল যাবোনা, ছাত্র বলে ডাক্তারি পড়বো না।
ভবিষ্যৎ জানে, ভুত সর্ষের মধ্যে নাকি অন্য কোথাও।

,

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com