Home / Breaking News / কচুয়ায় জামিনপ্রাপ্ত আসামী আবারো বাদীর বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর

কচুয়ায় জামিনপ্রাপ্ত আসামী আবারো বাদীর বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর

মফিজুল ইসলাম বাবুল, কচুয়াঃ
কচুয়া উপজেলার আশ্রাফপুর ইউনিয়নের বড়পাড়া গ্রামের মজুমদার বাড়ির মোঃ করিম মজুমদার সিআর মামলা নং ৮১/২০২১ আদালত থেকে জামিনে এসে আবারো বাদীর বাড়িতে হামলা চালিয়ে পাক ঘরের টিনের বেড়া এবং হান্ডি পাতিল ভাংচুরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। মামলার বাদী বিল্লাল মজুমদার জানান, উল্লেখিত মামলায় কবির মজুমদারসহ মোট ১২জন আসামী রেয়েছে। তারা সবাই আমার ভাই বোন এবং আত্মীয় স্বজন। ৬ ভাই ৩ বোনের মধ্যে বিল্লাল সকলের ছোট। দীর্ঘদিন তারা পৈত্রিক সম্পত্তি থেকে বিল্লালকে উচ্ছেদের পায়তারা করে বিভিন্ন দিন সময়ে বাড়ি ঘরে হামলা চালিয়ে ভাংচুরসহ তাকে এবং তার পরিবারের সদস্যদেরকে নির্মমভাবে মারধরের পর ওই মামলা রুজু হয়। বিল্লাল আরো জানান,বিবাদী করিমকে পুলিশ গ্রেফতার করার পর ৯দিন জেল খেটে গত ১১/০৩/২০২১ তারিখে আদালত থেকে জামিনে বাড়িতে আসলে তাদের পারিবারিক বিষয়টির মীমাংসার জন্য ৩ দফায় এলাকায় শালিশ বৈঠকে কোনো সুরাহ না হলে সম্প্রতি ঈদুল ফিতরের পরেরদিন শনিবার (১৫মে) জামিন প্রাপ্ত আসামী কবির মজুমার সকাল অনুমান ৯টায় দিকে আবারো দেশীয় অস্র রামদা দিয়ে কুপিয়ে তার রান্নাঘরের বেড়া এবং হান্ডি পাতিল ভাংচুর করে। এ সময় বিল্লাল বাড়িতে ছিলনা তার পরিবারের লোকজন বাঁধা দিতে গেলে রামদা উছিঁয়ে খুন করার হুমকি দিলে তারা ভয়ে আর প্রতিরোধ করতে পারেনি। এ নিয়েও ১৭ ও ২০ মে দু”দফা শালিশ বৈঠক হয়েছে। এতেও তাদের পারিবারিক সমস্যার কোনো সমাধান হয়নি।স্থানীয় সংরক্ষিত মহিলা আসনের ইউপি সদস্য খোদেজা বেগম জানান, বিল্লাল মজুমদার একজন নিরীহ,কিন্তু তার ভাইয়েরা প্রভাবশালী, কোনো আইন কানুন এবং এলাকার দেন-দরবার মানেনা। জামিনপ্রাপ্ত আসামী করিম মজুমদারের বক্তব্য নেয়া হলে তিনি জানান,আমি রান্নাঘরের বেড়া ভাংচুর করেনি তা আগেই বিনষ্ট ছিলো। তবে তার সীমানায় রান্নাঘর থাকায় হান্ডি পাতিল ভাংচুরের কথা শিকার করে।
উল্লেখ্য যে, গত ১১ ডিসেম্বর ২০২০ ইং তারিখে দৈনিক চাঁদপুর দপর্ণ পত্রিকায় কচুয়ায় নিজ সম্পত্তি থেকে একটি পরিবারকে উচ্ছেদের পায়তারা শিরোনামে বিল্লালের বাড়ি ঘরে হামলা চালানোর ভাংচুরের ঘটনা সংবাদ প্রকাশ পায়।

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com