Breaking News
Home / Breaking News / নিত্যপণ্যের ছোঁয়া কাঁচা বাজারে, পটলসহ চার সবজির সেঞ্চুরি

নিত্যপণ্যের ছোঁয়া কাঁচা বাজারে, পটলসহ চার সবজির সেঞ্চুরি

মো কামরুল হোসেন সুমন,ভোলা প্রতিনিধিঃ

গত কিছুদিনে দেশের বাজারে নিত্যপণ্যের দামের ঊর্ধ্বগতিতে দিশেহারা সাধারণ মানুষ। নিম্নবিত্ত থেকে মধ্যবিত্ত হয়ে উচ্চবিত্তরাও হিমশিম খাচ্ছেন নিত্যপণ্যের চাহিদা মেটাতে গিয়ে। এবার নিত্যপণ্যের দাম বৃদ্ধির সেই ছোঁয়া লাগলো রাজধানীর কাঁচা বাজারগুলোতেও।

শুক্রবার (১১ মার্চ) রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা যায়, বাজারে নতুন পুরোনো বেশিরভাগ সবজির দামই চড়া। তবে কিছুটা স্বস্তি আছে মুরগি বা গরুর মাংসসহ পেয়াজের দামে।

বাজার ঘুরে দেখা যায়, গ্রীষ্মের নতুন সবজি পটলের কেজি বিক্রি হচ্ছে ১১০-১২০ টাকায়। এছাড়া ঢেঁড়সের কেজি বিক্রি হছে ৯০-১০০ টাকায়।

এদিকে বাজারে বরবটির কেজি আগের চেয়ে কিছুটা কমলেও সেই দামও রয়ে যাচ্ছে সাধারণের ধরা ছোঁয়ার বাইরে। বাজারে বরবটি বিক্রি হচ্ছে ৮০-১০০ টাকা কেজি দরে।

এদের সাথে আরও আছে করোলা। এ সপ্তাহের বাজারে করোলার কেজি ১০০-১১০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া শিমের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৪০-৬০ টাকা, ফুলকপি ৫০-৬০ টাকায়। বাজারে লাউয়ের দামও ঊর্ধ্বমুখী, প্রতি পিস লাউ বিক্রি হচ্ছে ৫০-৬০ টাকা দরে।

বাজারে সবজির দামে আগুন লাগলেও কিছুটা স্বস্তি এসেছে পেঁয়াজের দামে। গেলো সপ্তাহের চেয়ে প্রায় ১৫ টাকা কমে এই সপ্তাহে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৪৫-৫৫ টাকা কেজি দরে।

এদিকে এই সপ্তাহের বাজারে মুরগির দাম রয়েছে আগের সপ্তাহের মতোই। ব্রয়লার মুরগির কেজি বিক্রি হচ্ছে ১৬০-১৬৫ টাকা আর সোনালী মুরগির কেজি বিক্রি হচ্ছে ২৯০-৩২০ টাকা। মুরগির মতো গরুর মাংসের দামও রয়েছে অপরিবর্তিত। বাজারে গরুর মাংসের কেজি ৬৫ও টাকা করে

এছাড়া মাছের বাজারও আছে আগের মতো অপরিবর্তিতই। এক কেজি বা তার ওপরের সাইজের ইলিশ মাছের কেজি বিক্রি হচ্ছে ১০০০-১২০০ টাকায় আর ছোট ইলিশের কেজি ৫০০-৬০০ টাকা। রুই মাছ আকারভেদে বিক্রি হচ্ছে ৩০০-৪৫০ টাকা কেজিদরে। চিংড়ির কেজি বিক্রি হচ্ছে ৫৮০-৬৫০ টাকা করে।

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com