Breaking News
Home / Breaking News / দুই বাংলার বৃহত্তম নেটওয়ার্ক দৈনিক শব্দনগরের সেরা চার সাহিত্য

দুই বাংলার বৃহত্তম নেটওয়ার্ক দৈনিক শব্দনগরের সেরা চার সাহিত্য

কবিতা : হয়তো ভালোবাসি
কবি : রৌনকা আফরুজ সরকার
১০-০৩-২০২২

দেখিনি আমি তোমাকে কোনদিন।
তবুও বলতে পারি আজ ছুটির দিনে সকালে
তুমি ঘুমাচ্ছো। মাঝে মাঝে তৃতীয় নয়ন দিয়ে দেখি
তোমার কার্যক্রম। জানিনা এটা ভালোবাসা
কি না। হয়তো তোমাকে ভালোবাসি।

কুয়াশারও একটা বৈশিষ্ট্য আছে। সৌন্দর্য আছে।
কুয়াশার মাঝে সকালে তোমার সাথে হাঁটতে খুব ইচ্ছে করে। ইচ্ছে করে একসাথে দেখি কুয়াশার অপার সৌন্দর্য।
ছুটির দিনে রান্না করি আমি। খাবার টেবিলে তোমাকে আমি খুব করে চাই। মিস করি। জানিনা এর নাম
ভালোবাসা কি না। হয়তো তোমাকে ভালোবাসি।

রান্নারও একটা ছন্দ আছে। টুংটাং আওয়াজে তোমাকে
চাই। অনুভব করি।

চা আমার খুব পছন্দ। চা এর কাপে প্রতিদিন মিস করি
তোমাকে।
আমি প্রতি মূহুর্তেই ভাবি তোমাকে।
ব‍্যস্ত দুপুরে তোমায় অনুভব করি।
অলস দুপুরে খুব মিস করি।
জানিনা এটা ভালোবাসা
কি না। হয়তো তোমাকে ভালোবাসি।

——————————————–

শেষ পদচিহ্ন
মাজহারুল ইসলাম
১০/০৩/২০২২

নিস্তব্ধ রাতকে সাক্ষী রেখে কে যেন হেঁটে যায়
ফেনিল সমুদ্রের তীর ঘেঁষে ,
ঢেউয়ের আলতো ছোঁয়ায় মিলে যায় দূর নীলিমায়
দৃষ্টিসীমার অন্তরালে এক ঝলক অবয়ব
কোজাগরী জ্যোৎস্নার আলোয়
উড়ে অপ্সরা শাড়ির আঁচল ।
এলোমেলো বাতাসে খেলা করে কুন্তলগুচ্ছ
সম্মোহনী চোখে যেন রাজ্যের ক্ষুধা।
উষ্ণ ঠোঁটের পরতে নৈঃশব্দ্যের সুরেলা কথন
তান্ডব ধ্রুপদী নৃত্যের তালে
চোরাবালির প্রাসাদে আঁকে শৈল্পিক পদচিহ্ন ।

সময়ের আবর্তে স্থির হতে স্থিরতর হতে থাকে নিরবতা
থেমে যায় হৃদয় গহীনে পর্দার অনুরণন
ধীরে ধীরে ছায়াগুলো ভেঙে যায় ।
অদৃশ্য অঘোরে জমে ভালোবাসা বিলাস
চেতনা বৈ আলাপনের কোন প্রসঙ্গ থাকে না।

রাত্রির শরীর বেয়ে নেমে আসে অস্তিত্বের সংকট
উত্তাল ঢেউয়ের তোড়ে মুছে যায় শেষ পদচিহ্ন ।

রামপুরা, ঢাকা ।

——————————————–

বিনিময়
———সুলতানা লিপি

চাঁদের কাছে বলেছিলাম একটু আলো দাও
আমার জীবন তোমার দিলাম তুমি আমায় নাও।

হেসে দিয়ে চাঁদ বললো, এসো আমার কাছে
ভালোবাসা দেবো তোমায় আমার যত আছে।

রাতের আকাশে যখন আমি ছড়িয়ে দেবো আলো
তুমি আমার কাছে এসো বাসবো তোমায় ভালো।

যেদিন আমায় দেখবে না ওই আকাশের কোণে
তবুও আমি রাখবো না আর আঁধার তোমার মনে ।

নীলগিরিকে বলেছিলাম দু’হাত ধরো তুমি
তোমার চূড়ায় হেলান দিয়ে আকাশ ছোঁবো আমি ।

আলোর ছটা ফুটেছিল নীলপাহাড়ের মুখে
বলেছিল তোমায় আমি রাখবো আমার বুকে।

বলেছিলাম শ্রাবণ তুমি এসো না আমার পাশে
তুমি এলেই মনের কোণে আঁধার নেমে আসে।

হেসে দিয়ে বললো শ্রাবণ তাই যদি না হবে
বুকের ভিতর জমাট দুঃখ কষ্ট রয়ে যাবে।

বৃষ্টি হয়ে ঝরবো যখন তোমার দু’চোখ বেয়ে
মুছে নেবো মনের দুঃখ বৃষ্টি ধারা দিয়ে।

——————————————–

পৌরুষ
——-
শ্যামাপদ ভট্টাচার্য্য
১০/৩/২২
*********
কী লাভ বল — বয়ে
এই অপদার্থের বোঝা !
এবারতো জাগো – জাগ্রত হও
শিরদাঁড়া করো সোজা।

যত মিথ্যা মোহ – আবরণ ভাঙো
জেগে উঠুক মনুষ্যত্ব – মানবতা,
বজ্রকন্ঠে ধ্বনিত হোক ——
সন্ত্রাস নয় — সমন্বয়ের কথা।

জাগিয়ে তোলো প্রাণের প্রদীপ
চেতনায় আনো হুঁশ,
নির্জীব প্রাণে জেগে উঠুক
বিপ্লবী চেতনার পৌরুষ।।


——————————————–

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com