Breaking News
Home / Breaking News / দুই বাংলার বৃহত্তম নেটওয়ার্ক দৈনিক শব্দনগরের সেরা চার সাহিত্য

দুই বাংলার বৃহত্তম নেটওয়ার্ক দৈনিক শব্দনগরের সেরা চার সাহিত্য

বিভাগ- কবিতা
শিরোনাম- মনের কথা
অঞ্জন রায়
০৯/০৩/২০২২

কত মনের কথা আজ শুধু কবিতায় রাখি লিখে
কিন্তু কত মনের কথা যে আজ বলতে পারিনা মুখে,
আজ মনের কথা লিখে ভরাই শুধু নীল ডাইরির পাতা
কিন্তু মনের কথা শোনার আজ পাইনা কোনো শ্রোতা।
মনের কথায় আজ একলা বসে গাঁথি কত প্রেমগাঁথা
কিন্তু মনের কথা কভু করেনা কোনো বিশ্বাসঘাতকতা,
মনের কথায় সহস্রবার লেখা রয়েছে তোমার নাম
কিন্তু সব মনের কথার জায়গা আজ যেন নীল খাম।
মনের কথায় ঝুল পড়া প্রদীপ জ্বালিয়ে আলোকিত করি মন
কিন্তু সেই আলোয় আজ আঁধার মুক্ত হয়না জীবন,
মনের কথা ভেবে ভেবে আজ বড়ই ক্লান্ত আমি
কিন্তু মনের কথার কোথায় যে শেষ জানেন অন্তর্যামী।
মনের কথা নিয়ে আজ বসে কতই না লিখি কবিতা
কিন্তু বৃথা মনের কথা নিয়ে বাড়াই শুধু বুকের ব্যথা,
মনের কথার নেই যে মরণ যায় না কাউকে মুখে বলা
কিন্তু শূন্যের মাঝে আজ মনের কথা লিখেই আমার পথ চলা।
মনের কথায় তুমি আজও আমার জাগরণে, চিন্তায়, মননে
কিন্তু ইচ্ছেগুলো সব পড়ে আছে হৃদয়ের ভেতর শ্মশানে,
মনের কথায় ভালোবাসার সুর আজ বাজে হৃদয়ের প্রাঙ্গণে
কিন্তু আজ আমি আছি, শুধু তুমি নেই আমার জীবনে।

——————————————–
এমন অভাবী বন্ধু চাই
অরুণ কারফা

এমন গরীব বন্ধু চাই-
যে প্রকৃত অর্থে নিঃস্ব….
….. ভয় নাই অহংকার নাই মিথ্যা কুৎসা শুনেও যার নাম মাত্র বিকার নাই,
এত সব না থাকা সত্ত্বেও
এত অভাবের থেকে মধ্যেও
গভীর রাতে বিপদ এলে পরম সুখের নিদ্রা ভুলে
দৌড়ে এসে দাঁড়ায় পাশে এসে
যেন পিতামহ ভীষ্ম।

বলিষ্ঠ কণ্ঠ থাকলেও তাতে মেকী সমালোচনার ভঙ্গিমাতে কাউকে যে বিদ্ধ করবে
তীক্ষ্ণ শ্লেষের ধার নাই,
এসব সত্বেও দুঃখ নাই।

——————————————-

#চৈতন্য
#শিমলা

আমার কৃষ্ণ চূঁড়া গাছটা যেদিন নিঃস্ব হলো সেদিন ও কিন্ত বসন্ত ছিলো,
তবে আমার অন্তরে —–
প্রকৃতির কাছে কখনো নিঃস্বতার গল্প করিনি আমি।
ভরা বর্ষায় যখন অঝোরে ভিজেছিলো আমার চাওয়ার পথ গুলো তখন আমি বর্ষার দৌরাত্ম্যে আবাক হয়নি।
নক্ষত্র পতনের মতো জীবনের আকাশ থেকে ঝরে গেছে অজস্র তারা,
এরকম ঝরে যায়, ব্যাখ্যাবিহীন।
প্রতিনিয়ত হেঁটে হেঁটে যে পথে মসৃনতা এনেছি হঠাৎ সে পথে গুল্মলতা কিংবা আয়েশী ঘাসের মৌন প্রতিপত্তির বিস্তারকে আমি আমল দেইনি খুব একটা,

এটা অহংকার নয়,
সমুদ্র স্নানে প্রতিনিয়ত ভেজা বালি ও মাঝে মাঝে তপ্ততার আগুনে পুড়ে।
শুধু সময়কে ছাঁচে ফেলে অবয়ব দিতে হয়।
আত্মনিমগ্নের আলোয় ঠোঁটে ঠোঁট ছুঁয়ে যে অমৃত পান করা যায় কখনো কখনো দূরত্বের কাছেও সে অমৃত থাকে।
তাই নিঃস্বতার সব সংজ্ঞা এক হয় না,
কিছু কিছু না পাওয়ার ঘরে কাঁথা মু্ড়ে ঘুমিয়ে থাকে পাওয়ার আবেদন।
তখন খুলে দিতে হয় জানালা,
আলোর স্পষ্টতায় ফুটে উঠে ফুল ঘরে আর গাছে।

——————————————–

আমি নারী
নুরুন্নাহার
০৯-০৩-২০২২

আমি নারী, আমি অবলা।
আমি নারী, আমি বীরাঙ্গনা।
আমি নারী, আমি গৃহিণী।
আমি নারী, আমি জননী।
আমি নারী, আমি সহধর্মিনী।
আমি নারী, আমি বোন।
আমি নারী, আমি স্বর্গ।
আমি নারী, আমি নরক।
আমি নারী, আমি ঘর গোছাই।
আমি নারী, আমি দেশ চালাই।
আমি নারী, গুণে অনন্যা।
আমি নারী, দুনিয়ার জান্নাত।
আমি নারী, দুনিয়ার প্রশান্তি।
আমি নারী তাই করো না হেলা।
যোগ্য সম্মান পেলে আমি,
সারাজীবন থাকব সুশীলা।

——————————————–

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com