Breaking News
Home / Breaking News / চাঁদপুর হরিনা বাজারে মুদি দোকানে ভিক্ষুক মহিলাকে আটকে রেখে ধর্ষণ

চাঁদপুর হরিনা বাজারে মুদি দোকানে ভিক্ষুক মহিলাকে আটকে রেখে ধর্ষণ

চাঁদপুর প্রতিনিধিঃ
চাঁদপুর সদর উপজেলার ১৩ নং হানারচর ইউনিয়নের হরিনা বাজারে মুদি দোকানের ভিতরে ৩০ বছর বয়সী এক মহিলা ভিক্ষুককে আটকে রেখে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে হরিনা বাজারের মুদি ব্যবসায়ী হাকিম বেপারীকে আপত্তিকর অবস্থায় হাতেনাতে আটক করে স্থানীয় ব্যবসায়ীরা। ভিক্ষুক মহিলাকে ধর্ষণ করার ঘটনাটি বহিরাগত কিছু দালাল চক্র ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করছে।
হরিনা বাজারের ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করে বলেন, লক্ষ্মীপুর ইউনিয়নের কমলাপুর গ্রামের ইসমাইল বেপারী ছেলে হাকিম বেপারীর দোকানে ভিক্ষার জন্য এক মহিলা যায়। দুপুরে ব্যবসায়ীরা নামাজ পড়তে গেলে সেই সুযোগে তার দোকানের শাটার মেরে জোরপূর্বক ভাবে চান্দ্রা ইউনিয়নের মদিনা মার্কেট এলাকার ভিক্ষুক মহিলাকে ধর্ষণ করে। এসময় ভিক্ষুক মহিলা ডাক চিৎকার দিলে পথচারীরা সহ বাজার কমিটির হান্নান দোকানের শাটার খুলে আপত্তিকর অবস্থায় ধর্ষণকারী হাকিম বেপারীকে হাতেনাতে ধরে ফেলে। ধর্ষণের শিকার হওয়া ভিক্ষুক মহিলা এই ঘটনার মুদি ব্যবসায়ী হাকিম বেপারীর বিচারের দাবি জানান।
দোকানের ভিতর ধর্ষণের ঘটনা জানতে পেরে এলাকার শত শত মানুষ বাজারে এসে ভিড় জমায় ও প্রতিবাদ করে। ঠিক সেসময় বাজার কমিটির হান্নান ধর্ষণকারী হাকিম বেপারির কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা নিয়ে তাকে বাজার থেকে পালিয়ে যাওয়ার সুযোগ করে দেয়। এই ঘটনার প্রতিবাদে স্থানীয় ব্যবসায়ীরা ক্ষিপ্ত হয়ে হাকিম বেপারীর দোকানের শাটার আটকিয়ে তালা মেরে দেয়।
ভিক্ষুক মহিলাকে ধর্ষণ করার ঘটনাটি ধর্ষণকারী হাকিম বেপারী তড়িঘড়ি করে বহিরাগত কিছু দালাল চক্রদের খবর দিয়ে এনে ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করে। এই ঘটনাটি স্থানীয় কিছু সাংবাদিক খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গেলে তাদেরকে ঘটনাটি প্রকাশ না করার জন্য চাপ প্রয়োগ করেন। এই ধর্ষণকারী হাকিম বেপারী এর পূর্বেও তার দোকানের ভিতর শাটার আটকে অনেক যুবতী ও মহিলাকে ধর্ষণ করেছে বলে স্থানীয়রা অভিযোগ করে জানান।
দোকানের ভিতর এরকম ন্যাক্কারজনক ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে স্থানীয় ব্যবসায়ীরা বিক্ষোভ করেন ও এই ধর্ষণকারীর বিচারের দাবি জানান।

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com