Breaking News
Home / Breaking News / চাঁদপুরসহ ৪টি প্রজনন কেন্দ্রে জাটকা নিধন প্রতিরোধে মার্চ এপ্রিল দু’মাস মেঘনা পদ্মায় অভয়াশ্রম

চাঁদপুরসহ ৪টি প্রজনন কেন্দ্রে জাটকা নিধন প্রতিরোধে মার্চ এপ্রিল দু’মাস মেঘনা পদ্মায় অভয়াশ্রম

মোহাম্মদ সিন্টুঃ
ইলিশের পোনা জাটকা রক্ষায় চাঁদপুরসহ দেশের ৪টি প্রজনন কেন্দ্রকে মার্চ এপ্রিল দু’ মাস অভয়াশ্রম ঘোষণা করা হয়েছে সরকারীভাবে। এ সময়ের মধ্য চাঁদপুরের মেঘনা ও শরীয়তপুরের পদ্মায় কোনো প্রকার জাল ব্যবহার ও কোনো প্রজাতির মাছ শিকার সম্পুর্ন নিষেধাজ্ঞাজারী করা হয়েছে। প্রতি বছরের ন্যায় এ বছরও জাটকা রক্ষায় সরকার অভয়াশ্রমের ঘোষণা প্রদান করেন। গত অক্টোবর মাসে মা ইলিশ রক্ষায় চাঁদপুরসহ দেশের ৪টি প্রজনন কেন্দ্রকে অভয়াশ্রমের আওতায় এনে মা ইলিশ রক্ষা অভিযান পরিচালনা করা হয় সরকারীভাবে। ঐ সময়ের মধ্যে সাগরের নোনাযুক্ত পানি থেকে ঝাঁকে ঝাঁকে ইলিশ মিঠা পানিতে এসে ডিম ছাড়ে। মেঘনা পদ্মার ঘুর্ণণ স্রোতে মার্চ এপ্রিল মাসে পোনা থেকে জাটকায় পরিনত হয়। মার্চ এপ্রিল দু মাসের মধ্যে চাঁদপুরসহ, শরীয়তপুর, আন্দারমানিক, চর আলেকজান্ডার, হাতিয়া সন্দীপ এ চারটি প্রজনন কেন্দ্রে জাটকা রক্ষায় পুলিশ প্রশাসন, জেলা প্রশাসন,চাঁদপুর মৎস্য বিভাগ ও কোস্টগার্ড কঠোর পদক্ষেপ নিয়েছে। অভয়াশ্রম চলাকালে কোনো প্রকার জাল ব্যবহার কোনো প্রজাতির মাছ শিকারকারীর বিরুদ্ধে জেল জরিমানাসহ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে জানা যায়। বিশেষ করে চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার ষাটনল থেকে চর আলেকজান্ডার বিস্তৃর্ণ নদী ও সাগর এলাকার ১শ কিলো মিটার এলাকায় জাটকা নিধন প্রতিরোধ অব্যাহত থাকবে। মার্চ এপ্রিল দু মাস অভয়াশ্রম চলাকালীন সময়ে মতলবের ষাটনল থেকে হাইমচর উপজেলার তালিকাভুক্ত প্রায় ৫৫ হাজার জেলে পরিবারকে সরকার বিকল্প কর্মসংস্থান, খাদ্য ও নগদ অর্থ প্রদান করবে বলে জানা যায়। মার্চ এপ্রিল দু মাসের মধ্যে প্রশাসনিকভাবে জাটকা রক্ষা করা গেলে এ মৌসুমে জাটকা গুলো পরিপক্ব ইলিশে পরিনত হবে বলে জানা যায়। বিশেষ করে ইলিশের বাড়ি চাঁদপুরের মিঠা পানির ইলিশের চাহিদা বেশ কয়েকটি দেশে চাহিদা রয়েছে। এসব ইলিশ প্রতি বছর সরকারীভাবে এলসির মাধ্যমে বিদেশে রপ্তানি করা হলে ব্যাপক রাজস্ব আদায় হয়ে থাকে। চাঁদপুর মৎস্য বিভাগ সুত্রে জানা যায়, মার্চ এপ্রিল দু মাস সবার আন্তরিকতায় জাটকা প্রতিরোধ করা গেলে প্রায় ২ আড়াই লাখ মেট্টিক টন ইলিশ উৎপাদন হওয়ার সম্ভাবণা রয়েছে। ইতিমধ্যে চাঁদপুরের জেলা প্রশাসন, উপজেলা প্রশাসন জাটকা রক্ষায় সভা সমাবেশ করেছে। এমনকি স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের জাটকা রক্ষায় বিশেষ ভুমিকা পালন করার জন্য আহবান জানানো হয়। মার্চ এপ্রিল দু’মাসের মধ্যে চাঁদপুরের মেঘনা ও শরীয়তপুরের পদ্মার বিভিন্ন এলাকায় চলতি সময়ে জাটকারোধে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহন করবে বলে প্রশাসন সুত্রে জানা যায়।

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com