Breaking News
Home / Breaking News / কবি সারমিন জাহান মিতু’র কবিতা “মানুষ কাকে বলে “

কবি সারমিন জাহান মিতু’র কবিতা “মানুষ কাকে বলে “

মানুষ কাকে বলে
সারমিন জাহান মিতু

০২-০২-২০২২

মুছে গেছে ধুপকাঠির কুয়াশা – -খামখা পৌষের হিম শয্যা বিছিয়ে জীবন বড়ো একা,
কেউ কেউ স্বপ্ন বুনছে নতুন বসন্তের প্রথম আলোকে ছুঁয়ে দেবার – কেউ কেউ প্রভাত ফেরীতে ভুলে যাওয়া নামের মলিন স্মৃতি স্মরণে বেঁচে তো আছি ভাবনায়।
কি পেলাম জীবন ছকে – রোজ বড়ো বাড়াবাড়ি,
শৈশবের লেপটে যাওয়া কাজলে- যে স্বপ্ন সুতায় বাঁধা ছিলো – সে আজ নতজানু দেহে একটু একটু হাঁটে – জীবন বড়ো ক্লান্ত।
প্রাপ্তির খাতাটি শূন্য যোগফল – আরও চাই নিত্য প্রতিধ্বনি বেজে ওঠে গির্জা, মসজিদ – মন্দিরে,
মানুষ কাকে বলে ব্যাখ্যাটি বাতিল খাতায় পরে থাক- যদি স্বপ্ন না থাকে কোন মনে।
আমি আসলে জীবনের কথা বলতে পারিনি- যেভাবে দুঃখের কথা গুলো বলেছি,
জীবনে সুখের সংজ্ঞা নিবেদনে চাই – আরও চাই – বলতে এসে থেমে গেছি – আমার কন্ঠরুদ্ধ – আওয়াজ টুকু শুনতে পাওনি তুমি।
আমিও আমার মনের ভেতর মন রেখেছি কারাদণ্ড দিয়ে – বিশ্বাস করো আমি মসজিদ, মন্দির অথবা গির্জার পাথুরে চৌকাঠ পেরিয়ে – তোমার কাছে চাইতে পারিনি,
যা আমার প্রাপ্তির হিসেব খাতা ভরাট করে।
তুমি আমাকে দিয়েছিলে ঢের সুন্দর জীবন – কিন্তু আমি দুঃখ বলে ফিরিয়ে দিলাম – বসন্তের ফুল সহ্য হয়না আমার ,
নিতেই পারো যতটুকু তোমার দেবার ছিলো ফিরিয়ে – আমার কিচ্ছু চাই না – কারণ মানুষ কাকে বলে আজও জানা হয়নি আমার।

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com