Home / Breaking News / কলকাতার কবি অনমিত্র স্যানাল এর দুর্দান্ত কবিতা “রোজ হাঁটি সাতশো বছর”

কলকাতার কবি অনমিত্র স্যানাল এর দুর্দান্ত কবিতা “রোজ হাঁটি সাতশো বছর”

রোজ হাঁটি সাতশো বছর

অনমিত্র

১৫/০১/২০২২

আমার শব্দেরা এলোমেলো বিংশ শতক,
গুছোবো যে, সে আশাও নেই,
শ্রবনেও শান্তি নেই,
সম্পর্কেও দেদার ফাঁক,শব্দকুসুম সব খুলে রাখি,সোনার বোতামের মতো,
শব্দজুুলুম যত ত্যাগ করি পুরোনো অন্তর্বাসের মতো,পাশ কাটি,ক্ষতচিহ্ন তাকিয়ে দেখি না,

এভাবেই শব্দেরা আশ্রয় ছেড়েছে, পলি পড়ে ঢেকেছে অতীত,শব্দেরা জীবাশ্ম হয়েছে,
পলিগ‍্যামি ধান হয়ে অজস্র স্ত্রীলোক ধরে আছে..এখন কাটুক ধান..যতটুকু কচি ধান, তার বুকে যতটুকু দুধ, উথলে পড়ুক সোজা নিন্দুকের মুখে..
কিছু শব্দ আষাঢ়ে যাক,
কিছু যাক ভাদ্রের বুকে,
খোলামেলা মিথ‍্যেগুলো সোজা রেখো..সত‍্যিরা অতটাও সোজা নয়..
যতটুকু সত্যি হলে কোনোদিন মানুষ মরে না..

যেভাবে পুরুষটিকে ছেড়ে গেলো নারী,
কিছু শব্দ স্পষ্ট কপট, প্রয়োজনে সহবাসে অযথা কাঙাল,গর্ভবতী হয়, যথারীতি শব্দ প্রসব করে,
হলুদ, বাসন্তী কিম্বা স্পষ্ট সবুজ..
বুক পেতে ধরতে গিয়ে দেখি, সে শব্দে শুধুই যৌনতা।

যে নারী বুকের গভীরে থাকে, শব্দগুলো ঘুরেফিরে সেখানেই বসে,আমন্ত্রিত শীর্ণ নদীর মতো,হঠাৎ ডাকলে বাণ,কোনো মেঘমল্লার,যদি খুলে যায়,নারীর ধ্রুপদী শরীর, আটপৌরে স্তব্ধ বিকেলে রোদের লম্বা
পায়জামা,
দু-পায়ে মাড়িয়েছে কত কেচ্ছা,তবুও শব্দ নিয়ে ছেলেখেলা !
অনমিত্র, তুমি কি পাগল হলে ?

নারী নয়, নারী আর শব্দের সমান্তরাল কিছু ,
এ শ্রাবণে দেখা হলে বলে দিও, কতটুকু শব্দ তোমার, কতটুকু প্রেম,
তবুও তো যে প্রেমিকা বুকে ধরি,তার প্রয়োজন, অতটাও নয়,যতখানি শব্দ নিয়ে রোজ হাঁটি সাতশো বছর।

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com