Breaking News
Home / Breaking News / পশ্চিমবঙ্গের কবি শ্যামল ব্যানার্জীর দুর্দান্ত কবিতা “এবার তো চোখ খোল”
কবি শ্যামল ব্যানার্জী

পশ্চিমবঙ্গের কবি শ্যামল ব্যানার্জীর দুর্দান্ত কবিতা “এবার তো চোখ খোল”

কবিতা — এবার তো চোখ খোল
শ্যামল ব্যানার্জী
১২/১০/২০২১
রিটনের একটি দুর্দান্ত লেখা, “” নারী তুই চুপ থাক “” — তার প্রেক্ষিতে লেখা।

আর কত বোঝাবো তোকে?
আর কত বোঝাবো তোকে?
কি দিয়ে বোঝাবো তোকে? কি ভাবে বোঝাবো তোকে?
মেয়েরা তোরা মানিস, কেন?
এত মানিস কেন, পুরুষ তান্ত্রিক শয়তানেরে,
মানার মতো অনেক ভালো
মানার মতো অনেক কিছু,
প’ড়ে আছে সারাৎসারে।
সব ছেড়ে তুই বোকার মতো
মানিয়ে নেবার ভুতটা ঘাড়ে ,
সহ্য আর করিস নারে,
লাথি ঝ্যাঁটা অপমানের জল
না খেলে বুঝি হয়না হজম,
সহনশীলতার ঢোক দিব্যি খেয়ে,
দিব্য থাকিস মহান ঐ নারীর বেশে।
এবার খান্ত দে না।
অনেক হলো, পালটে যা’না,
এবার একটু খানি দাঁড়া রুখে,
সাহস খানা রাখনা বুকে।
দ্যাখনা কি হয় , গ্যাস ওভেনটা নিভিয়ে দিয়ে।
অরন্ধনে কাটিয়ে দেনা একটা করে আর একটা দিন,
অসহযোগিতার পদক্ষেপে প্রতিবাদ হোক
ঋজু দেহে, ভেঙে প’ড়া নয়,
বুঝিয়ে দে’না চাল চলনে দিন প্রতিদিন।
চারপাশের মানুষ গুলো, না হয় বুঝুক একটু করে,
একটা মেয়ে রোজ নামচায়
সারাটাদিন কি যে ক’রে।
জামা কাপড় থাকনা প’ড়ে যা যেখানে
নোংরা আছে,,
থাকনা প’ড়ে, ঘরের ঝাড় পোঁছ,
দেখবি, তবেই নড়বে টনক,
মরবে তখন ইঁদুর ভয়ে,
বেড়াল ছানা ধরে পাছে।
কি করে বোঝাবো তোকে?
কি করে আর বোঝাবো তোকে,
আসলে, তোরা নরম মাটি, শক্ত মাটি চাসনা হতে,
আঁচড়ে গেলেও প্রতিবাদ হীন
জীবন কাটাস গতানুগতে।
বলছি তোকে বারেবারে, হাত তুলেছে গায়ে কি তোর,
এমন দিন আসলে প’রে, চাবুক মারে কাটিয়ে দে ঘোর।
তুই যে শুধু মেয়ে নয় এক, কিংবা ভোগের নারী,
ভেবে দ্যাখ, তোর গর্ভ থেকে জন্ম নিল,
বিশ্ব জুড়ে কত নোবেলধারী।
এবার তবে ওঠরে জেগে, প্রতিবাদের মুখটা দেখি,
গোর্কির মা হয় দেখ, অলুক্ষণে সকাল কেটে, আসছে নুতন ভোর।
মেয়ে হয়ে তুই মেয়ের পাশে চিহ্ন রাখিস তোর।

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com