Breaking News
Home / Breaking News / তুমি

তুমি

তুমি
………..ফারজানা আক্তার

বৃষ্টির রিনিঝিনি শব্দ শুনতে শুনতে
তোমার কথা ভাবতে ভাবতে
গভীর তন্দ্রায় তলিয়ে পড়ি।
কখনও তুমি আমি ভিজছি
হাতে হাত রেখে বৃষ্টির গানে,
কখনও বৃষ্টির পানি ঝাঁপটে,
আমি তোমার সাথে পারি বল?
তাই আমি তোমা থেকে দূরে ছুটিলাম।
কিন্তু,সে চলন তোমার আমার বিচ্ছিন্ন!
আমি পারি না নিজেকে সামলাতে
আমি পারি না নিজেকে ক্ষমা করতে
কেন জান?মনে হয় আমি দায়ী।
আমি ছুটছিলাম,তুমিও পিছু পিছু
হঠাৎ আমি হাসতে হাসতে পিছনে ফিরি
তুমি নেই,বৃষ্টির প্রবল নৃত্যে চারপাশ
অন্ধকারে ঢেকে যায়,একি
কোন কিছু দৃশ্যমান নয়
হঠাৎ করে করে মেঘের গর্জন
সাথে ভয়াবহ বিজলির চমক
আমি ভয়ে কুঁকড়ে যায়,সাহস পাচ্ছি না
তবু সমস্ত বাধাঁ আটকিয়ে জোরে জোরে
তোমার নাম জপছিলাম,অনিমেষ
বৃষ্টির এমন বেপরোয়া নৃত্যের সাথে
আমার ডাক হারিয়ে যাচ্ছিল,কি করব?
অসহায় এ মন কাদঁছিল,আমার জন্য নয়
তোমার জন্য প্রিয়,আমি ভালবাসি
বড্ড ভালবাসি,সমস্ত পৃথিবীর সকল
দিন রাত এক করেও আমার ভেতরে
তোমার জন্য ভালবাসার টান শেষ নয়।
কি করব বল?সে ছোট্ট কালের প্রেম
শত আবদার শত আল্লাদ শত ব্যাকুলতা
তোমার কাছে, প্রিয় অনিমেষ।
ভালবাসার ঘর বাধিঁ নি,ভালবাসার মন বেধেঁছি
যেটা ক্রমে এমন জমাটবদ্ধ মোম।
তোমার ফটোর প্রেমের সামনে দাঁড়িয়ে
পূর্বের স্মৃতিকথা এমন করে স্মরি।
তোমার আমার প্রথম দেখা ক্রান্তির মেলায়
এভাবে ক্রমে তোমার আমার দেখা
তোমার আমার বাড়ি এক পাড়াতে
চার ঘর পরে,কখনও আড় চোখে
কখনও মিষ্টি চোখে মিষ্ট হাসিতে
এভাবে প্রেমে প্রেমে কত বছর
স্কুল পেরিয়ে মাধ্যমিকে,তারপর কলেজ
সেখান থেকে বিশ্ববিদ্যালয়,হিসেব আছে বল?
একদিন লাল শাড়ি, লাল টিপ,লাল চুরি
কাজল রেখা চোখ যতনে সাজিয়ে দাাড়িঁয়ে আছি।
তখন তুমি পাঞ্জাবী গায়ে আমার পাশে দাড়িঁয়ে
কতটা সময় পেরিয়ে গেল টের পায় নি,
মনে আছে চৌ রাস্তার মোড়ে,দুজনের নিঃশব্দ চাহনি
যেন জাদুর মোহে,এক নিবৃষ্ট আবেশে
তুমি ঘোর কাটিয়ে,হাটু গেড়ে বসে
টুকটুকে লাল গোলাপ দিয়ে বললে ভালবাসি
কি লাজুকতা,কি হচ্ছিল বলতে পারব না
মনে হচ্ছিল অনেক খুশি,এত সুখ
আমার জীবনে কখনও আসি নি।
আমি তো তোমায় ভালবাসি অনিমেষ
মেয়ে তো,লজ্জায় পারি নি বলতে
যদি তুমি আমায় অগ্রাহ্য কর,তিল তিল
গড়ে ওঠা ভালবাসা এক মুহূর্তে যদি
কাঁচের মত টুকরো টুকরো করে
ভেঙ্গে যায়,আমি বাচবঁ কি করে বল?
তাই তো মনের সানন্দে তোমার
ভালবাসা গ্রহণ করলাম,তুমি বললে
কাল এসো বৃষ্টিবিলাস করব দুজনে।
সারা রাত ঘুম হয় নি ছটফট ছটফট
করেছি,কত কিছু ভেবেছি কত কথা
সাজিয়েছে ক্রিস্টেল পাথরের পুথিঁর মত।
বৃষ্টির নৃত্য একটু কমে,আকাশ ফেটে আলো
দেখি পড় আছ,তোমায় ঘিরে কিছু মানুষ
অনিমেষ,কথা বল আমি অনুরিতা
সাথের লোকগুলো তোমাকে দেখেছে
একটা কার্গো গাড়ির ধাক্কায় ছিটকে পড়তে
কি রক্ত,এত রক্ত দেখে ভয় পেলাম
না,আমার ভালবাসার দাম এত নির্মম কেন?
হাসপাতালের বেডে তুমি চেষ্টায় রত
আমার কাছে ফিরে আসতে,বুঝেছি
তোমার শেষ কথায়,তুমি বলেছিলে
অনেক কষ্টে,জোরে শ্বাস নিয়ে,চাপা কন্ঠে
পারি না শুরু করতে,তোমায় ভালবাসি
ক্ষমা কর।এরপর চুপ,তোমার মুখে কথা নেই
আজ এক যুগ পেরিয়ে তোমায় আগলে রেখে
একাকী এ কঠিন পথ,শুধু তোমার জন্য
অনিমেষ,মাঝে মাঝে আর পারি না
আজ এত কষ্ট,বুকে বড় কষ্ট,আহ
শ্বাসটা আটকে যাচ্ছে,অনিমেষ তুমি?
আমি আসছি তোমার কাছে,অনিমেষ
আমার অনিমেষ,দাড়াঁও আসছি।

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com