Breaking News
Home / Breaking News / ফরিদগঞ্জে ছিনতাই ও হামলার শিকার হয়েছেন সাংবাদিক নুরুল ইসলাম ফরহাদ

ফরিদগঞ্জে ছিনতাই ও হামলার শিকার হয়েছেন সাংবাদিক নুরুল ইসলাম ফরহাদ

ফরিদগঞ্জে ছিনতাই ও হামলার শিকার হয়েছেন সাংবাদিক নুরুল ইসলাম ফরহাদ
ফরিদগঞ্জ প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দের নিন্দা ॥ নাগরিকের নিরাপত্তা বিধানের দাবী

আবু হেনা মোস্তফা কামাল, ফরিদগঞ্জ: ফরিদগঞ্জে ছিনতাইয়ের শিকার হয়েছেন সাংবাদিক নুরুল ইসলাম ফরহাদ। ছিনতাইকারীরা তার সাথে থাকা ল্যাপটপ কম্পিউটার, ব্যক্তিগত মোবাইল ফোন, নগদ টাকা, জরূরী কাগজপত্র ও চাবি নিয়ে গেছে। এ সময়ে তিনি বাধা দেয়ার চেষ্টা করলে ছিনতাইকারীরা তাকে মারধর করেছে। তিনি সামান্য আহত হয়েছেন। ফরিদগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অদূরে কামিনী ব্রিজের ওপর এ ঘটনা ঘটেছে সোমবার রাত আনুমানিক ০৯:১৫ ঘটিকায়। খবর পেয়ে ঘটনার কিছুক্ষণের মধ্যে ফরিদগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ শহীদ হোসেন, সেকেন্ড অফিসার এস.আই. জামাল ও সঙ্গীয় ফোর্স ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন এবং খোঁজ খবর নিয়েছেন। এ ব্যপারে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের লক্ষে রাতেই ফরিদগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ছিনতাইয়ের শিকার নুরুল ইসলাম ফরহাদ।

নুরুল ইসলাম ফরহাদ জানান, রাত আনুমানিক ০৯:০০ ঘটিকায় ফরিদগঞ্জ বাজার থেকে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেই। রাত আনুমানিক সোয়া ৯ ঘটিকায় বড়ালি কামিনী ব্রিজের ওপর ওঠার পর আমার বিপরীত এবং পূর্বে গাব্দেরগাঁও গ্রামের দিক থেকে সাদা রংয়ের একটি প্রাইভেট কার আসে। কারটি উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে আমাকে ব্রীজের ওপর চাপিয়ে দেয়। এতে আমি ব্রেক করে দাঁড়াই। ওই সময়ে কারটি আমার পাশে এসে অত্যন্ত দ্রুত গতিতে ব্রেক করে চালক গাড়িতে বাসে থাকে এবং অজ্ঞাতনামা দু’জন ব্যক্তি (তাদের একজনের বয়স আনুমানিক ৩৩ অপরজনের ৩৮ বছর হবে) নেমে আমাকে আক্রমণ করে। আমাকে কিলঘুষি মেরে আমার সাথে থাকা ডেল কোর আই-৫ নীল রংয়ের ল্যাপটপ কম্পিউটার ও আমার ব্যবহৃত এনড্রয়েট মোবাইল ফোন (স্যামসাং জে ওয়ান) এবং আমার মোটরবাইক-এর চাবি, মানিব্যাগ ও সাথে থাকা গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন চাবি, জরুরী কাগজপত্র কেড়ে নিয়ে যায়। মানিব্যাগে আনুমানিক ১৩০০ (এক হাজার তিন শত) টাকা ছিলো। ছিনতাই হওয়া মোবাইল ফোনের চলমান সিম নাম্বার: ০১৯২২-৬৮৩৮৪৪। এরপর দ্রুততার সাথে তারা তাদের প্রাইভেট কারে উঠে ফরিদগঞ্জের গৃদকালিন্দিয়া তথা রায়পুর উপজেলা রোডের দিকে চলে যায়। আমি দ্রুত নাম্বার সংগ্রহ করে ফরিদগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ, আমার সহকর্মী সাংবাদিক এবং আশেপাশের লোকজনদের খবর দিলে তারা ঘটনাস্থলে যান এবং আমার কাছে বিবরণ শুনেন। উল্লেখ্য, ফরিদগঞ্জ প্রেসক্লাব এর যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম ফরহাদ প্রতিদিন ওই রাস্তা ধরে গাব্দেরগাঁও গ্রামের বাড়িতে চলাচল করেন।

এদিকে, ফরিদগঞ্জ প্রেসক্লাব এর সভাপতি মোহাম্মদ কামরুজ্জামান, সাধারণ সম্পাদক আবদুছ ছোবহান লিটন রাতেই ছুটে যান। তারা ঘটনার খোঁজ-খবর নেন এবং থানা পুলিশের সঙ্গে কথা বলেন। এ ঘটনায়, প্রেসক্লাব এর নেতৃবৃন্দ ও সাংবাদিকগণ তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন এবং অপরাধীদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় নিতে থানা পুলিশের প্রতি আহবান জানিয়েছেন। সাংবাদিগণ বলেন, শুধু নুরুল ইসলাম ফরহাদ নন, সকল নাগরিকের জানমালের নিরাপত্তা দিতে হবে।

এই বিষয়ে ফরিদগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ শহীদ হোসেন জানান, ছিনতাইয়ের ঘটনাটি শুনে আমি ছুটে গিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি, এবং তাৎক্ষনীক পার্শ্ববর্তী থানাগুলোতে বিষয়টি জানিয়েছি। আমরা ছিনতাই কারীদেরকে আটকের জন্য অভিযান অব্যাহত রেখেছি।

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com