Breaking News
Home / Breaking News / তিতপল্ল্যা ইউনিয় আওয়ামী লীগের ইফতার দাওয়াত পাইনি মুক্তিযোদ্ধাসহ আওয়ামী লীগ নেতারা

তিতপল্ল্যা ইউনিয় আওয়ামী লীগের ইফতার দাওয়াত পাইনি মুক্তিযোদ্ধাসহ আওয়ামী লীগ নেতারা

জামালপুর প্রতিনিধি:–

জামালপুর সদর উপজেলার তিতপল্ল্যা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ইফতার মাহফিল গতকাল অনুষ্ঠিত হয়েছে। তিতপল্ল্যা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আজিজুর রহমান ইফতার মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন।
তিতপল্ল্যা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগকে বাহির থেকে, সংঘবন্ধ মনে হলেও ভিতরে ভিতরে অন্ত কোন্দল চরমে, তা আর জানতে, বাকী রইলো না, এ ইফতার আয়োজনের মধ্য দিয়ে। ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ইফতারে দাওয়াত নিয়ে কোন্দল আরো স্পষ্ট হয়ে উঠেছে। স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মিদের মধ্য বইছে চরম ক্ষোভ।

স্থানীয়সূত্রে যানা যায়- ইফতারে দাওয়াত পাইনি, একান্তুরের রাজাকারের কলঙ্ক লিপ্ত ইউনিয়নের হাতে গুনা কয়েকজন মুক্তিযোদ্ধা।

সরোজমিনে গেলে ইউনিয়নের কাষ্টশিংগা গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা নুরল ইসলাম, নয়ন তারা, জয়েন উদ্দিন, রফেত মোল্লা ও বালু আটা গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা সুরুজ্জামান জানান, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ইফতারে তারা কেউ দাওয়াত পাননি। তাদের নাম বিভিন্ন কার্যকলাপে খাতা কলমে ব্যবহার করলেও বর্তমান সভাপতি, কোন কার্যক্রমে তাদের অন্তভুক্ত করেন না।

অপর দিকে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মতিউর রহমান মাষ্টার, আব্দুল জলিল, ইউনিয়নের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার মাহমুদ হাসান মিলন, সদস্য ও সাবেক সাধারন সম্পাদক সেলিমসহ এক তৃতীয়াংশ নেতা-কর্মিদের ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ আয়োজিত ইফতারে দাওয়াত দেওয়া হয়নি বলে জানান, আওয়ামী লীগের একটি অংশ।

ইফতারে দাওয়াত না পাওয়া মুক্তিযোদ্ধারা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন – আমাদের ইউনিয়নে এখন ঘরে ঘরে আওয়ামী লীগ পাওয়া যায়। কিন্তু স্বাধীনতা সংগ্রামে তারা কোথায় ছিল, বঙ্গবন্ধুর ডাকে আমরা হাতে গুনা কয়েক জন যুদ্ধে যাপিয়ে পড়লেও দেশ বিরুধী অনেক রাজাকার, আলবদর এখনো এই ইউনিয়নে রয়েছে।

দাওয়াত না পাওয়া আওয়ামী লীগ নেতারা জানান- পুরানো বিভিন্ন বিষয়ের ক্ষোভ এখনো বহমান। বাইরে থেকে না দেখা গেলেও বিতরে বিতরে কোন্দল চরমে। বিশেষ করে, আসন্ন ইউপি নির্বাচনে সামনে রেখে, নিজের পাল্লা ভারি করতে, বর্তমান সভাপতি তার পছন্দের ব্যক্তিদের নিয়ে দল পরিচালনা করেন। কোন বিষয় নিয়ে তৃনমুল নেতা-কর্মিদের সাথে, সমন্নয় করেন না তিনি। এমন পরিস্থিতি চলমান থাকলে, তৃনমুল আওয়ামী লীগ আবারও সংকটে পড়বে।

উল্লখ্য গত ইউপি নির্বাচনে বর্তমান ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আজিজুর রহমান, নৌকা পেলেও তার একঘেয়ামী আচরন ও দলের নেতা-কর্মিদের সাথে রিক্ততার করনেই এই ইউনিয়নে নৌকার পরাজয়ের মুল কারন বলে জানান তৃনমুল নেতৃবন্দ ।

স্থানীয় আওয়ামী লীগের শুভাকাঙ্ক্ষী ও নৌকা প্রেমী তৃনমুল আওয়ামী লীগ মনে করেন, আন্ত কোন্দন চলমান থাকলে, আর নতুন নেতৃত্ব না আসলে, কোন ভাবেই এই সমস্যার অবসান ঘটানো সম্ভব নয়। ইউনিয়নের সমস্যা সমাধানে জেলা আওয়ামী লীগের সর্বচ্চ নীতি নির্ধারকদের সু-দৃষ্টি কামনা করেছেন, তৃনমুল আওয়ামী লীগ।

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com