Breaking News
Home / Breaking News / উদ্বোধনের আগেই জনপ্রিয়তার শীর্ষে মোহনপুর পর্যটন কেন্দ্র

উদ্বোধনের আগেই জনপ্রিয়তার শীর্ষে মোহনপুর পর্যটন কেন্দ্র

নিজস্ব প্রতিবেদক
সানি তপদার

৬০ একর জমির উপর নির্মিত মহনপুর পর্যটন লিমিটেড নামে এ পর্যটন শিশু, বৃদ্ধ ও শিক্ষার্থীদের সুস্থ বিনােদনের জন্যও সূদুরপ্রসারী পরিকল্পনা হাতে নিয়ে কাজ করা হচ্ছে। ফলে দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলাের ভ্রমণের জন্য মহনপুর পর্যটন কেন্দ্র লিমিটেড হয়ে উঠবে একটি আদর্শ এলাকা। পর্যটন কেন্দ্রের চারপাশে থাকছে দেশি-বিদেশি বাহারি গাছ বিভিন্ন পয়েন্টে থাকছে কেন্টিন, নির্ধারিত পিকনিক স্পট আরও থাকছে মিনি শিশু পার্ক। পর্যটন কেন্দ্রটির নিরাপত্তায় থাকছে অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তরা।

সৌন্দর্য পিপাসু মানুষের ভ্রমণের তীর্থস্থানে পরিণত হয়ে উঠেছে। চাঁদপুর জেলার মতলব উত্তরের মহনপুর পর্যটন কেন্দ্রটি। মেঘনা নদীর তীরবর্তী অপার সৌন্দর্যের প্রাকৃতিক লীলাভূমির নৈসর্গিক পরিবেশ আর এই পর্যটন কেন্দ্রের আধুনিক নির্মাণ শৈলীর মেলবন্ধন দেখতে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে প্রতিদিন ভিড় করছেন হাজার হাজার দর্শনার্থী। দেশি ও বিদেশি পর্যটকদের মাতিয়ে রাখতে উন্নত 1. পৃথিবীর আধুনিক পর্যটন স্থানগুলাের আদলে তৈরি হচ্ছে এর নির্মাণকাজ। ফলে উদ্বোধনের আগেই প্রতিদিন লােকে লােকারণ্য হয়ে উঠছে মহনপুর পর্যটন স্থানটি। শহরের গরম নিঃশ্বাসের বিপরীতে একবুক স্বচ্ছ নির্মল বাতাস, শান্ত ছায়া-সুনিবিড় বিশাল এলাকা, মেঘনানদীর বিশাল কূলজুড়ে কক্সবাজারের সমূদ্র সৈকতের উপলব্ধি, ক্লান্তি মুছে দেওয়া ছল- ছল ঢেউ, দৃষ্টিনন্দন রিভার ড্রাইভ দিয়ে হেঁটে চলা, মন চাইলে স্পিডবােটে মেঘনার বুক চষে বেড়ানাে, সােয়ান বােটিং-এ নিজেকে প্রাঞ্জল করে তােলা, প্রশান্তি নিতে সুইমিংপুলে ঝাঁপিয়ে পড়া, আনন্দ-ফুর্তিতে ক্লান্তি আসলে বিশ্রামের জন্য রয়েছে ৫ হাজার আসনের উন্মুক্ত মঞ্চ, সুবিশাল খেলার মাঠ, বর্ণিল আলােকসজ্জা। দেশি-বিদেশি পর্যটকদের জন্য থাকছে থ্রি স্টার ও ফাইভ-স্টার মানের হােটেল, উন্নত ও আধুনিক রেস্ট হাউজ, কেনাকাটার জন্য অত্যাধুনিক মার্কেট, ওয়াচ টাওয়ার, বিশিষ্ট ব্যক্তিদের ম্যুরাল, দূরপাল্লার লঞ্চের জন্য পন্টুন ব্যবস্থা ও প্রাথমিক সাস্থ্যসেবা কেন্দ্র

মােহনপুর পর্যটন লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাজী মিজানুর রহমান বলেন, পর্যটন একটি শিল্প। প্রকৃতিপাগল মানুষ সময় সুযােগ পেলেই পর্যটনের নেশায় ঘুরে বেড়ায়। কখনও প্রকৃতির প্রসারিত হস্ত চুম্বনকারী হিমালয় কন্যা নেপাল ও বৈচিত্র্যপূর্ণ থাইল্যান্ড, সিঙ্গাপুর, মালদ্বীপ, মালয়েশিয়ায় যাচ্ছে বাংলাদেশের পর্যটকরা। দেশের মধ্যে তাদের জন্য উন্নত বিনােদনের দেয়ার লক্ষে আমরা গড়ে তুলেছি মহনপুর পর্যটন কেন্দ্র লিমিটেড। বাংলাদেশের সকল শ্রেণীর পর্যটকদের কাছে মন্ত্রমুগ্ধকর একটি পর্যটন স্পট হিসেবে গড়ে তােলার লক্ষ্যে কাজ করছি আমরা। দেশি পর্যটকদের পাশাপাশি বিদেশি পর্যটকদের জন্য নজর কারবে এ পর্যটন

একর জমির উপর মহনপুর পর্যটন শিশু, বৃদ্ধ ও শিক্ষার্থীদের সুস্থ বিনােদনের জন্যও সূদুরপ্রসারী পরিকল্পনা হাতে নিয়ে কাজ করা হচ্ছে। ফলে দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলাের ভ্রমণের জন্য মহনপুর পর্যটন কেন্দ্র লিমিটেড হয়ে উঠবে একটি আদর্শ এলাকা। পর্যটন কেন্দ্রের চারপাশে থাকছে। দেশি-বিদেশি বাহারি গাছ বিভিন্ন পয়েন্টে থাকছে কেন্টিন, নির্ধারিত পিকনিক স্পট আরও থাকছে মিনি শিশু পার্ক। পর্যটন কেন্দ্রটির নিরাপত্তায় থাকছে অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তরা।

মােহনপুর পর্যটন লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাজী মিজানুর রহমান বলেন, পর্যটন একটি শিল্প। প্রকৃতিপাগল মানুষ সময় সুযােগ পেলেই পর্যটনের নেশায় ঘুরে বেড়ায়। কখনও প্রকৃতির প্রসারিত হস্ত চুম্বনকারী হিমালয় কন্যা নেপাল ও বৈচিত্র্যপূর্ণ থাইল্যান্ড, সিঙ্গাপুর, মালদ্বীপ, মালয়েশিয়ায় যাচ্ছে বাংলাদেশের পর্যটকরা। দেশের মধ্যে তাদের জন্য উন্নত বিনােদনের দেয়ার লক্ষে আমরা গড়ে তুলেছি মহনপুর পর্যটন কেন্দ্র লিমিটেড। বাংলাদেশের সকল শ্রেণীর পর্যটকদের কাছে মন্ত্রমুগ্ধকর একটি পর্যটন স্পট হিসেবে গড়ে তােলার লক্ষ্যে কাজ করছি আমরা। দেশি পর্যটকদের পাশাপাশি বিদেশি পর্যটকদের জন্য নজর কারবে এ পর্যটন কেন্দ্রটি।

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com