Home / Breaking News / ছাত্রীকে ডেকে নিয়ে স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেয় প্রধান শিক্ষক!

ছাত্রীকে ডেকে নিয়ে স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেয় প্রধান শিক্ষক!

পাবনা প্রতিনিধি :: পাবনার ঈশ্বরদী আলহাজ্ব টেক্সটাইল মিলস্ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোজাম্মেল হক (৫০) কর্তৃক একই বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণী ‘খ’ শাখার ছাত্রীকে শ্লীলতাহানীর ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় ওই ছাত্রী নিজেই বাদী হয়ে ঈশ্বরদী থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নং-৭৬, তাং-২৮/০৫/২০১৯ইং। শ্লীলতাহানীর শিকার ওই ছাত্রী শহরের মধ্য অরকোলা এলাকার মেয়ে।
মামলার দায়েরকৃত এজাহার এবং ওই ছাত্রী জানায়, গত ২৫শে মে দুপুরে স্কুল মাঠে সে সহ তার কয়েকজন বান্ধবীদের সাথে খেলা করছিলো। সে সময় প্রধান শিক্ষক মোজাম্মেল হক ওই ছাত্রীকে স্কুল গেটের সামনে ডেকে নিয়ে তাকে বিভিন্ন ধরণের অশ্লীল ও আপত্তিকর কথাবার্তা বলে শরীরের বিভিন্ন স্পর্শকাতর স্থানে হাত দিয়ে শ্লীলতাহানী করে। পরে তার বান্ধবীরা এগিয়ে এলে প্রধান শিক্ষক তাকে ছেড়ে দিয়ে দ্রুত স্থান ত্যাগ করে।
বিষয়টি জানাজানি হলে স্থানীয় প্রভাবশালীরা ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে জোর চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হলে অবশেষে মঙ্গলবার দুপুরে ওই ছাত্রী নিজেই বাদী হয়ে ঈশ্বরদী থানায় যৌন হয়রানীর মামলা দায়ের করেন। মামলার পর থেকেই অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক গা ঢাকা দিয়েছেন। মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে প্রধান শিক্ষক মোজাম্মেল হক ওই ছাত্রীর অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, তার বিরুদ্ধে স্থানীয় কতিপয় ব্যক্তি গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। তারই অংশ হিসেবে মিথ্যা ঘটনা সাজিয়ে এরকম মামলা দায়ের করা হয়েছে।
ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বাহাউদ্দিন ফারুকী জানান, প্রাথমিক তদন্তে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে। ওই ছাত্রী নিজেই বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছে। আসামী ধরতে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলেও জান্না ওসি।

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com