Breaking News
Home / Breaking News / জামিনের প্রলোভনে হাজতীর স্ত্রীকে ধর্ষণ : কারারক্ষীর বিরুদ্ধে মামলা

জামিনের প্রলোভনে হাজতীর স্ত্রীকে ধর্ষণ : কারারক্ষীর বিরুদ্ধে মামলা

বিশেষ প্রতিনিধিঃ
জেলা কারাগারে আটক এক হাজতীকে জামিনের প্রলোভন দেখিয়ে তার স্ত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে এক কারারক্ষীর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় জেলা কারাগারের এক কারারক্ষীর বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা দায়ের করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে রাজবাড়ীতে।
অভিযুক্ত ধর্ষক করাররক্ষীর নাম আনিসুর রহমান আজ্জুল (৩৫)। সে রাজবাড়ী জেলা কারগারে কারারক্ষী হিসেবে কর্মরত রয়েছে বলে জানা যায়। এ ঘটনায় সোমবার রাজবাড়ী নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলা দায়ের করেন ঘটনার শিকার ওই হাজতীর স্ত্রী (২৬)।
মামলার অভিযোগে প্রকাশ, সম্প্রতি রাজবাড়ী জুট মিলে কর্মরত এক ব্যক্তি একটি মামলায় গ্রেফতার হয়ে জেল হাজতে আটক ছিলেন। চলতি বছরের ১ ফেব্রুয়ারী ওই গৃহবধূ তার স্বামীকে দেখতে জেলা কারাগারে যান। এ সময় সেখানকার কারারক্ষী আনিসুর রহমান আজ্জুল (৩৫) এর সাথে পরিচয় হয় ওই গৃহবধূর।
এই পরিচয়ের সূত্র ধরে ৫০ হাজার টাকার বিনিময়ে ৭ দিনের মধ্যে তার স্বামীকে জামিন করে দেয়ার ব্যাপারে ওই গৃহবধূকে আশ্বাস দেন অভিযুক্ত কারারক্ষী। পরবর্তীতে ভূক্তভোগী গৃহবধূকে উকিলের বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে একটি মাহেন্দ্র গাড়িতে উঠিয়ে অজ্ঞাত এক বাড়িতে নিয়ে যায় কারারক্ষী আনিসুর।
সেখানে ওই গৃহবধূকে ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করে আনিসুর। এমনকি এক সহযোগীকে দিয়ে ওই ধর্ষণের চিত্র মোবাইল ফোনে ভিডিওচিত্র ধারণ করে অভিযুক্ত ধর্ষক আনিসুর। পরে ওই কারারক্ষী গত ২৪ এপ্রিল রাতে জেলা কারাগার সংলগ্ন শ্মশান ঘাটের ভিতরে নিয়ে সেখানে ভয়-ভীতি প্রদর্শনপূর্বক দ্বিতীয় দফা ধর্ষণ করে।
ফলে এ ঘটনায় গত সোমবার ওই গৃহবধূ নিজে বাদী হয়ে রাজবাড়ী নারী ও শিশু ট্রাইব্যুনালে মামলাটি দায়ের করেন। আদালত মামলাটি গ্রহণ করে পরবর্তী আদেশের জন্য ১৩ মে দিন ধার্য করেছেন।
এ বিষয়ে রাজবাড়ী জেলা কারাগারের জেল সুপার মোঃ আনোয়ারুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, অভিযুক্ত কারারক্ষীর সাথে ওই হাজতীর বাকবিতন্ডার কারণে এ ঘটনা ঘটতে পারে।
রাজবাড়ী জেলা প্রশাসক মোঃ শওকত আলী বলেন, বিষয়টি খতিয়ে দেখতে তিনি জেল সুপারকে নির্দেশ দিয়েছেন।

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com