Breaking News
Home / Uncategorized / লুডু খেলায় ২০ টাকা হেরে ভেদরগঞ্জে যুবককে পিটিয়ে হত্যা!

লুডু খেলায় ২০ টাকা হেরে ভেদরগঞ্জে যুবককে পিটিয়ে হত্যা!

শরীয়তপুর প্রতিনিধিঃ
শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জের সখিপুরে লুডু খেলাকে কেন্দ্র করে মনির হোসেন মিজি (৩৫) নামে এক যুবককে প্রকাশ্যে পিটিয়ে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ করেছে তার স্বজনরা।
শনিবার শরীয়তপুর জেলার ভেদরগঞ্জ উপজেলার সখিপুর থানার বেড়াচাক্কি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
ঘটনার পর নিহতের মা বাদী হয়ে সখিপুর থানায় একটি হত্যা মালা দায়ের করেছে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে রোববার সকালে শরীয়তপুর সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।
নিহতের ভগ্নিপতি সাজাহান জানান, বৃহস্পতিবার শরীয়তপুর জেলার ভেদরগঞ্জ উপজেলার সখিপুর থানার বেড়াচাক্কি গ্রামের মকবুল মিজির ছেলে মনির হোসেন মিজি (৩৫) ও শহর আলী মোল্যার বাড়ি বেড়াতে আসেন চাঁদপুরের লক্ষ্মীপুর গ্রামের সুলাইমান মোল্যার ছেলে শাহাদাত হোসেন দিদার।
শনিবার তারা ২০ টাকা করে বাজি ধরে লুডু খেলছিল। খেলায় মনির হোসেন মিজি ২০ টাকা জিতে যায়। এ সময় শাহাদাত দিদারের কাছে মনির হোসেন মিজি তার পাওনা বাজির ২০ টাকা দাবি করে। দিদার দিতে অস্বীকার করে।
এ সময় মনির মিজির কাঠ পার্শ্ববতী নদীর পাড়ে ভিড়ে। কাঠ নামানোর জন্য শাহাদাতের কাছে তার গলায় থাকা গামছাটি চায় মনির মিজি। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে শাহাদাত বাঁশ দিয়ে পিটিয়ে মনিরকে গুরুতর আহত করে। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে চাঁদপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে।
অবস্থার অবনতি দেখে কর্তব্যরত চিকিৎসক মনিরকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। শনিবার ঢাকায় নেয়ার পথে মনির মিজি মারা যায়।
নিহতের আত্মীয় হোসেন পাটুয়ারী বলেন, মনির কাঠ নামানোর জন্য শাহাদাতের গলায় থাকা গামছা ধরে টান দেয়। এ নিয়ে শাহাদাত মনিরকে বাঁশ দিয়ে পিটিয়ে আহত করে। হাসপাতালে নেয়ার পর মনির মারা যায়।
সখিপুর থানার ওসি মো. এনামুল হক বলেন, লুডু খেলাকে কেন্দ্র করে তর্কবির্তকের একপর্যায়ে মনিরকে পিটিয়ে আহত করে। পরে তাকে ঢাকায় হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যায়। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে। আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

error: Content is protected !!

Powered by themekiller.com